ওপেন ফায়ার করার নির্দেশ দিলেন ইসি রফিকুল ইসলাম

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ নির্বাচন কমিশনার (ইসি) রফিকুল ইসলাম  বলেছেন, যদি কেউ নির্বাচনী মালামাল ছিনতাই করার চেষ্টা করে, জান-মালের ক্ষতি হলে কোন রকম দ্বিধাদ্বন্দ্ব না করে ওপেন ফায়ার। আজ থেকেই বিজিবি, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হবে।

বুধবার (২৭ মার্চ) সকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সোনারগাঁও, রুপগঞ্জ, আড়াইহাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সাথে আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, উপজেলা নির্বাচনে যদি কেউ কোন রকম ঝালেমা কেউ তৈরি করার চেষ্টা করে তাহলে কারো দিকে না তাকিয়ে জেলে ঢুকানো হবে।বিভিন্ন থানার ওসি ও ইউএনও’র বক্তব্যে প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশনার বলেন, এমপি কিংবা মন্ত্রীদের বিনীতভাবে আপনারা অনুরোধ করবেন যাতে প্রচারণায় তারা অংশ না নেন। কিন্তু তারপরেও তারা কথা না শুনলে বলে দিবেন নির্বাচন কমিশন যদি জানতে পারে, আপনারা প্রচারণায় নামছেন তাহলে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশনা দেয়া আছে। আপনারা সম্মানিত ব্যাক্তি। আপনার সম্মানকে অক্ষুন্ন রাখতে আমরা সর্বদা সচেষ্ট।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া। উপস্থিত ছিলেন, আড়াইহাজার উপজেলার রিটার্নিং কমকর্তা সেলিম রেজা, রূপগঞ্জ ও সোনারগাঁ উপজেলার রিটার্নিং কর্মকর্তা আতাউর রহমান, সোনারাগাঁ, রূপগঞ্জ এবং আড়ইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় সোনারাগাঁ, রূপগঞ্জ এবং আড়ইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এর দাবির প্রেক্ষিতে অতিরিক্ত বিজিবি, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করার নির্দেশ দেন নির্বাচন কমিশনার। এখানকার চরাঞ্চলে তিনটি ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রের জন্য একজন অতিরিক্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং কোস্টগার্ড এবং নৌ পুলিশ দেয়ারও নির্দেশনা দেন।

1