নৌকায় ভোট দেওয়ায় মুক্তিযোদ্ধার বাড়ী ঘর ভাংচুর

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাচনে নৌকা প্রতিকে ভোট দেওয়ায় এক মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি ও দোকানে হামলা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। রোবার রাতে বরাব গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
(৩১ র্মাচ) রোববার সোনারগাও উপজেলা নির্বাচনে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহন চলে। ভোট গনণা শেষে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী মোশারফ হোসেন নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহাফুজুর কালামকে ঘোড়া প্রতিককে বিপুল ভোটের ব্যাধানে পরাজিত করে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসীরা কাছ থেকে জানাযায়, রোববার সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী মোশারফ হোসেনের নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার রোববার রাতে উপজেলার সাদীপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার জাতীয় পার্টির নেতা রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে পাগলা সিরাজ, মাহামুদ আলী, আব্দুর রব, ওমর আলী, মিলন, শামীমসহ অর্ধশতাধিক লোকজন বরাব গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মতিউর রহমানের বাড়িতে এ হামলা চালায়। সে সময় বাড়িঘর ও দোকানপাট ভাংচুর করে লুপটাপ চালায়।

এসময় তারা মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মতিউর রহমানের ছেলে যুবলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল জাকিরকে পেটে ছুরিকাঘাত করে আহত হয়। পরে স্বজনরা আহত যুবলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল জাকিরকে উদ্ধার করে ঢাকা-মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। আহত আব্দুল্লাহ আল জাকির সোনাগাঁয়ের সাদীপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি। এদিকে একই সময় জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা নৌকার প্রতিকের ক্যাম্প ভাংচুর করে নৌকার সমর্থক আমির হোসেন, ইমরান, শাহিনসহ ৫/৬ জনকে পিটিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা মোবাইল ডিউটিরত পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।
স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মতিউর রহমান জানান, তিনি এবং তার পরিবারের সদস্য আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। সাদীপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার জাতীয় পার্টির নেতা রফিকুল ইসলাম বিদ্রোহী পার্থী মাহফুজুর রহমানের কালামের ঘোড়া প্রতিক নির্বাচন করেন। আমাদেরকে ঘোরা প্রতিকে ভোট দেওয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করে আসছিল। কিন্তু তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধা হয়ে দলের সাথে বেইমানী না করে নৌকা প্রতিকে ভোট দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে জাতীয় পার্টির নেতা রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা আমার বাড়িতে হামলা করে ভাংচুর করে। এসময় সন্ত্রাসীরা তার দোকানে ভাংচুর ও লুটপাট করে। এসময় আমার ছেলেরা বাধা দিতে চাইলে আব্দুল্লাহ আল জাকিরকে পেটে ছুরিকাঘাত করে গুরুতর আহত করে।

সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

1