মধ্যরাতে মদ্যপানে মাতাল, পিপির ছেলে রক্তাক্ত উদ্ধার

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ নারায়ণগঞ্জ জেলা পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) ও আওয়ামীলীগ নেতা ওয়াজেদ আলী খোকনের ছেলে আকিব( ২০) কে রক্তাক্ত অবস্থায় তার বাসা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। আহত পিপি’র ছেলে আকিব সাদাত (২০) কে চিকিৎসার জন্য নারায়ণগঞ্জ ৩’শ শয্যা হাসপাতালে নেয়া হয়। সোমবার (১ এপ্রিল) দিবাগত রাতে চাষাড়া বালুরমাঠ নিজ বাস ভবন এ ঘটনা ঘটে। ওই সময় বাসা থেকে দুজনকে আটক করে পুলিশ । আটককৃত দুই জনের একজন আকিবের বন্ধু ইয়ামিন (২০)। সে নগরীর খানপুর এলাকার মনির হোসেন পোকনের (খোকন) ছেলে। অপর জন তাদের বান্ধবী সায়মা (২০)। সে বালুমাঠ এলাকার বিশিষ্ট সূতা ব্যবসায়ী বাদশার ছোট ভাই আবদুর রব এর মেয়ে।

আটককৃত ইয়ামিনের ভাষ্যমতে জানা যায়, পিপি ওয়াজেদ আলী খোকনের নিজ বাস ভবন বালুর মাঠ এলাকায়। যে বাসার চতুর্থ তলার ফ্ল্যাটে আকিব, বন্ধু ইয়ামিন ও বান্ধবী সায়মা প্রায় মদ পান করে। ঘটনার দিনও তারা মদ পান করেন। মদ পানের এক পর্যায়ে আকিবের হাত কেটে গেলে অনাকাঙ্খিত ঘটনার সৃষ্টি হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার রাত বারটায় পিপি’র বাড়ির চতুর্থ তলার ফ্ল্যাটে তুমুল হট্টগোলের শব্দ পেয়ে স্থানীয়রা ওয়াজেদ আলী খোকনকে অবহিত করে। এমন হট্টগোলের নেপথ্যে কি ঘটছে তা জানতে ওয়াজেদ আলী খোকন চতুর্থ তলায় ছুটে যান। অনেক চেষ্টা করেও দরজা খুলতে ব্যর্থ হয়ে সদর থানা পুলিশকে খবর দেয়া হয়। পুলিশ দীর্ঘ চেষ্টার পর ফ্ল্যাটের ভিতর থেকে আকিব সাদত, বন্ধু ইয়ামিন ও তাদের বান্ধবী সায়মাকে উদ্ধার করে। তবে, এসময় পিপি ওয়াজেদ আলী খোকন তার পুত্রকে খানপুর ৩শ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যায়। অন্যদিকে, অপর দুজনকে পুলিশ থানায় নিয়ে যান। হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত সুপার ডা. জাহাঙ্গির আলমও মধ্যরাতে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে এসে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যান মদ্যপানে অসুস্থ্য আকিব সাদতকে। সেখানে সে কয়েক বার বমি করে। আকিব সাদত গুরুতর আহত নন। তার হাত সামান্য কেঁটে গেছে। ধারণা করা হচ্ছে মদ পানের পর কোন কাঁচ জাতীয় কিছুতে আঘাত পেয়েছে। কোন সেলাই করতে হয়নি । সামন্য ড্রেসিং করে দেয়া হয়েছে।

1