স্বপ্ন দেখার সাহস দিলেন তাঁরা

0

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: বঙ্গমাতা গোল্ডকাপের প্রচারণায় যোগ হয়েছে দুই কলম্বিয়ান নারী ফুটবলার। ক্যাথরিন ফ্যাবিওলা কাস্ত্রো ২০১১ জার্মানি বিশ্বকাপ খেলেছেন আর জেসিকা উর্তাদোর আছে অলিম্পিক ফুটবলের অভিজ্ঞতা। বাংলাদেশ দলের জার্সি উন্মোচন অনুষ্ঠানে নিজেদের সেই অভিজ্ঞতার গল্পই শুনিয়েছেন তাঁরা, যা বড় স্বপ্ন এঁকে দেবেন মনিকা-মারিয়াদের চোখে।

২২ এপ্রিল থেকে ঢাকায় শুরু হচ্ছে বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল। মেয়েদের এই অনূর্ধ্ব-১৯ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট উপলক্ষে দুই কলম্বিয়ান নারী ফুটবলার ঢাকা এসেছেন গত পরশু। ‘ডেয়ার টু ড্রিম’ লেখা টি-শার্টে দুই তারকা গতকাল বাফুফে ভবনে হাজির হয়ে মুখোমুখি হয়েছেন সংবাদমাধ্যমের। জেসিকা উর্তাদোর কাছে বাংলাদেশ সফরটা এক অ্যাডভেঞ্চার, ‘আমি এখানে আসতে পেরে খুশি। কারণ এটা আমার কাছে একটা অ্যাডভেঞ্চার, এ দেশের নারী ফুটবলারদের সহযোগিতা করতে এসেছি আমরা। তাদের সঙ্গে দেখা করার জন্য মুখিয়ে আছি। আমাদের বার্তা হলো, তাদের ফুটবলের স্বপ্ন সত্যি করা সম্ভব। সে ক্ষেত্রে একে অন্যকে সহযোগিতা করতে হবে, সংশ্লিষ্ট সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।’ লন্ডন অলিম্পিক খেলা ক্যাথরিন ফ্যাবিওলা কাস্ত্রো, ‘মহিলা ফুটবল হলো একটা পরিবারের মতো, সে যেখানকার ফুটবলারই হোক।’

এর আগে গতকাল সকালে ঢাকার ইংরেজি একটি দৈনিকে নারী ফুটবলের সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে আয়োজন করে এক গোলটেবিল। এ দেশে নারী ফুটবলের জাগরণকে সবাই স্বাগত জানিয়ে এর সমস্যাগুলো চিহ্নিত করার চেষ্টা করা হয়েছে। নারী ফুটবলার বাড়ানো এবং নারীদের জন্য ঘরোয়া ফুটবল অবকাঠামো শক্তিশালী করা এবং লিগ আয়োজনের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। কনটেন্ট এডিটর মোহাম্মদ আল আমীনের সঞ্চালনায় গোলটেবিলে বিষয়ভিত্তিক আলোচনায় অংশ নেন সাবেক ফুটবলার মিউরেল গোমেজ, মহিলা ফুটবল শুরুর কোচ মোশারফ বাদল, প্রাথমিক শিক্ষা পরিদপ্তরের ডেপুটি ডিরেক্টর শাহ সুফী মোহাম্মদ আলী রেজা, কলসিন্দুরের সাফল্যের নায়ক মফিজ উদ্দিন, কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন, সংগঠক আমের খান, সাংবাদিক সনৎ বাবলা, মাসুদ আলম প্রমুখ। পরে নিজেদের কর্মকাণ্ড ও সীমাবদ্ধতার কথা তুলে ধরেন বাফুফের মহিলা কমিটির প্রধান ও ফিফা সদস্য মাহফুজা আক্তার কিরণ, বাফুফে সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ ও কে স্পোর্টসের প্রধান নির্বাহী ফাহাদ করিম।

0