শামীম বলয়ে এসপি হারুন আতংক, এর পর কে?

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ অনেকটা আতংকের মধ্যে দিয়ে দিন পাড় করছে ক্ষমতাশীন দলের প্রভাবশালী সংসদ সদস্য একে এম শামীম ওসমান বলয়ের নেতাকর্মীরা।
শামীম ওসমানের আল্টিমেটারের শেষ দিনে গ্রেপ্তার হয় ডিসবাবু। এর পর কে গ্রেপ্তার হতে পারে পুলিশের হাতে এমন আতংক চলছে নেতাকর্মীদের মাঝে। আর সুনিদিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতিই পুলিশ গ্রেপ্তার করছে। এ কারনে পুলিশের বিরুদ্ধে কোন কথা বলতে পারছে না কেউ।  (৬ এপ্রিল) নগরের ইসদাইরে অবস্থিত বাংলা ভবন কমিউনিটি সেন্টারে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের ব্যানারে নেতা-কর্মীদের নিয়ে জরুরী কর্মিসভায় শামীম ওসমান এসপির প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, মানুষ পোশাকধারী সন্ত্রাসীকে দেখতে চায় না। মশা মারতে কামান দাগাতে চাই না।খেলা হবেনা। খেলা শুরু হওয়ার আগেই খেলা শেষ। আগামী ১০/১২ দিনের মধ্যে টের পাইবেন।
শামীম ওসমানের আল্টিমেটামের শেষ দিনে ঘনিষ্টজন হিসেবে পরিচিত নাসিক ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল করিম বাবু ওরফে ডিশ বাবুকে ১০ লাখ টাকা চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
পুলিশ সুপার কার্যালয় সূত্র জানাযায়, এসপির সাথে সরাসরি দেখা করে ডিসবাবুকে কেন গ্রেপ্তার করা হয়েছে তার কারণ জানতে চান শামীম ওসমান। চাঁদাবাজির সুনির্দিষ্ট অভিযোগে ডিস বাবুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানান পুলিশ সুপার। তার পরে চলে আসনে তিনি।
গত ডিসেম্বর মাসে নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করেন হরুন-অর রশিদ। যোগদান করেই জিহাদ ঘোষনা করেন, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ি, তৈল চোর, জুয়ার আসর সহ সকল অবৈধ ব্যবসায়িদের বিরুদ্ধে।
গত ২০ জানুয়ারি চাঁদাবাজির মালমায় ওসমান পরিবারের আস্থাভাজন নারায়ণগঞ্জের পাগলার দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মীর হোসেন মীরুকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
গত ১১ মার্চ ফতুল্লার লঞ্চঘাট এলাকায় চোরাই জ্বালানি তেলের আস্তানায় পুলিশের অভিযানে বিপুল পরিমাণ চোরাই জ্বালানিসহ মূল হোতা ইকবাল হোসেন তিনজনকে গ্রেপ্তার করে।
গত ১ এপ্রিল রাতে ফতুল্লার পাগলা এলাকায় অবস্থিত মেরি অ্যান্ডারশনে ভাসমান জাহাজে পুলিশের অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ ৭০ জনকে গ্রেপ্তার এবং পুলিশের প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে শামীম ওসমানের শ্যালক তানভীর আহম্মেদ টিটুর নাম আসার মতো ঘটনাগুলো শামীম ওসমানের সমর্থকদের মর্মাহত করে। এসব ঘটনার জেরে শামীম ওসমানসহ তাঁর কর্মীসমর্থকরা বিভিন্ন আকার ইঙ্গিতে পুলিশ প্রশাসনের সমালোচনা শুরু করেন। পুলিশ সুপারকে ঘুষখোর আখ্যা দিয়ে বলেছিলেন, এটা গাজীপুর না এটা নারায়ণগঞ্জ।

1