মাছি তাড়ানোর পাঁচ প্রাকৃতিক উপায়

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ  ‘মাছিমারা কেরানি’ বলে একটি প্রবাদ আছে। বাস্তবে এ ধরনের কোনো পদ আছে বলে শোনা যায় না। ইদানীং ঘরে–বাইরে মাছির উপদ্রব এতই বেড়েছে যে আক্ষরিক অর্থে মাছিমারা কেরানি হতে হচ্ছে অনেককেই! কিন্তু মাছি তাড়ানোর ভালো কিছু উপায় আছে হাতের কাছেই। সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে মাছি তাড়ানোর পাঁচটি উপায় জেনে নিন

ফেলে দিন মাছির খাবারের উৎস
আপনার বাসাটি মাছির চোখে দেখুন। নোংরা ঘটিবাটি, ফেলে দেওয়া পানীয়ের বোতল, পোষা প্রাণীর খাবারের পাত্র মাছিদের খাদ্যের চমৎকার উৎস। তাই বাসার প্রতিটি ঘরে ঢুঁ মেরে দেখুন, কোথায় এমন পাত্র আছে। খুঁজে পাওয়ামাত্রই পরিষ্কার করুন অথবা ফেলে দিন। এই নিয়ম কেবল এক দিনের জন্য মানলেই চলবে না। প্রতিদিন খাওয়ার শেষে ঘর পরিষ্কার রাখুন, মাছি আপনার বাসার ওপর রুচি হারিয়ে ফেলবে।

দূর করুন পোষা প্রাণীর নোংরা
পোষা প্রাণী প্রতিদিনই প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেয়। এবং আপনি নিশ্চয়ই সেসব পরিষ্কারও করেন নিয়মিত। কিন্তু এটা জেনে রাখুন, একটু দেরি করলেই মাছিরা পেয়ে যায় বংশরক্ষার বিপুল সুযোগ। কারণ, পোষা প্রাণীর মল মাছিদের ডিম পাড়ার মোক্ষম জায়গা। একবারে ৭৫–১৫০টি ডিম পাড়ে এরা। ডিম ফুটে বাচ্চা বেরোতে সময় লাগে মাত্র ২৪ ঘণ্টা। তাই আলসেমি করে পোষা প্রাণীর মল এক দিন ফেলে রাখা মানে ১৫০টি মাছিকে বাসায় স্বাগত জানানো। অতএব পোষা প্রাণীর মলমূত্র সাফ করুন দ্রুত সময়ের মধ্যে এবং খাঁচা রাখুন পরিষ্কার।

বন্ধ করুন মাছি ঢোকার পথ
ঘর খোলা থাকলে মাছি ঢুকবেই। এরা বেহায়া অতিথি। কিন্তু মাছির আগমন যদি হয় ঝাঁকে ঝাঁকে, তাহলেই বুঝবেন ঝামেলা আপনার দিক থেকেও কম নয়। মানে আপনার বাসার কোনো সমস্যাই হয়তো মাছিদের উষ্ণ আমন্ত্রণ জানাচ্ছে। খুঁজে দেখুন, কোন পথ দিয়ে মাছি বেশি আসছে। হয়তো জানালার পর্দা ফুটো। নয়তো জানালার কাচে থাকতে পারে ফাঁক। এ রকম আরও নানা ধরনের পথ থাকলে মাছি ঢুকবেই। অতি দ্রুত সেসব পথ বন্ধ করুন।

রোপণ করুন বিশেষ কিছু গাছ
মাছি তাড়ানোর জন্য গাছ লাগান। পতঙ্গভুক গাছ নয়, খুব পরিচিত কিছু গাছ লাগালেই হবে। গাছ বলতে আবার বড়সড় উদ্ভিদও নয়, গুল্মজাতীয় উদ্ভিদ। যেমন পুদিনা, লেমনগ্রাস ও তুলসী। বাসার সঙ্গে বাগান থাকলে সেখানে তো থাকতেই পারে। আর নাহলে বাসার ভেতরে টবে লাগাতে পারেন এই গুল্মগুলো। টবগুলো সাজিয়ে রাখতে হবে সামনের ও পেছনের দরজার আশপাশে। জানালার পাশেও রাখতে পারেন। বাগানে তেজপাতা ও নিমগাছ থাকলেও ঘরে মাছি কম আসে।

প্রাকৃতিক ফাঁদ পাতুন
ফাঁদ বানাতে লাগবে অ্যাপল সিডার ভিনেগার। একটি স্বচ্ছ কাচের বয়ামে অ্যাপল সিডার ভিনেগার ঢালুন অর্ধেকের কম পরিমাণে। কাচের বয়ামের খোলা মুখে কাগজের একটি ফানেল বসিয়ে দিন। ভিনেগারের ঘ্রাণে পাগল হয়ে মাছি এসে ঢুকবে কাগজের ফানেলের ভেতরে। কিন্তু বের হওয়ার আর সুযোগ পাবে না। ঘরের যেসব জায়গায় মাছিদের আনাগোনা বেশি, সেসব জায়গায় এই ফাঁদ পাতুন। এ ছাড়া একটি বড়সড় লেবু মাঝবরাবর কেটে তাতে ২০–২৫টি লবঙ্গ গেঁথে ঘরে রেখে দিলেও মাছি কম আসবে।

1