ডিভোর্সের পর যেসব কাজ অবশ্যই এড়িয়ে চলবেন…

1

ডেইলি নারায়গঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ ডিভোর্স বা বিবাহ বিচ্ছেদের মতো বিষয় কেবল মানসিক বিচ্ছেদ ঘটায় না, এর সঙ্গে সংসার ও সন্তানরা জড়িত থাকে। এই বিচ্ছেদের রেশ কাটতে কখনো মাস বা বছর লেগে যায়। তবে ডিভোর্স যদি হয়েই যায়, তাহলে কিছু বিষয় কিন্তু এড়িয়ে যাওয়াই ভালো।

ডিভোর্সের পর কিছু বিষয় অবশ্যই এড়িয়ে যেতে হবে আপনাকে। এ বিষয়ে কিছু পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

১. প্রাক্তনকে খুব সহজেই পাবেন, এই আশা করবেন না :

ডিভোর্সের পর প্রত্যেকরই পথ কিন্তু আলাদা হয়ে যায়, আলাদা কাজ, জগৎ তৈরি হয়। তাই ডিভোর্সের পর প্রাক্তন স্বামী বা স্ত্রীকে আপনার প্রয়োজন বা চাহিদার সময় আগের মতো পেয়ে যাবেন, এমনটা না ভাবাই ভালো। এমনটা প্রত্যাশা করাও ঠিক না।

২. প্রাক্তনের সঙ্গে আটকে থাকা :

মানুষটি কোনো না কোনো কারণে ‘সাবেক’ হয়ে গেছে। তাই তার পেছনে আঠার মতো লেগে না থাকাই ভালো। সে তার জীবনে কী করছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় কী স্ট্যাটাস দিচ্ছে, সেগুলো কিন্তু এখন আর আপনার ভাবার বিষয় নয়। তাই এই বিষয়টি অবশ্যই আমলে নিতে হবে আপনাকে।

৩. কাউন্সেলিং বাদ দেবেন না :

ডিভোর্সের পর প্রত্যেকেই মানসিক পীড়াদায়ক অবস্থায় থাকেন। এ অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে এবং নিজেকে আবারও মানসিকভাবে শক্তিশালী করতে কাউন্সেলিং খুব জরুরি। হতে পারে সেটি প্রফেশনাল কাউন্সিলরের মাধ্যমে বা খুব কাছের কোনো বুদ্ধিমান, বিচক্ষণ মানুষের দ্বারা।

৪. প্রাক্তন সম্পর্কে বাজে কথা লিখবেন না :

অনেকে ডিভোর্সের পর প্রাক্তন স্বামী বা স্ত্রীকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বাজে কথা লিখতে থাকেন। তারা ভাবেন, এতে ওই ব্যক্তিটি অপদস্থ হবে। এই কাজটি একদমই করবেন না। এতে আপনার ব্যক্তিত্বের ওপরই বাজে প্রভাব পড়বে।

৫. নিজেকে একা করে ফেলবেন না :

বিচ্ছেদের পর অনেকে এতটাই ভারাক্রান্ত হয়ে পড়েন যে নিজেকে সবার কাছ থেকে আলাদা করে ফেলেন। এটি না করাই ভালো। এ সময় ইতিবাচক মানুষের সঙ্গে মিশুন। আর যারা আপনাকে দোষারোপ করবে বা সমালোচনা করবে তারা কখনোই আপনার ভালো বন্ধু নয়। আসলে ইতিবাচক মানুষ আপনাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে, ভুলগুলো ঠিক করতে সাহায্য করবে, দোষারোপ করবে না।

৬. পরিকল্পনা ছাড়া সম্পর্কে জড়াবেন না :

ডিভোর্সের পর অনেকে এতটাই একাকিত্বে ভোগেন যে খুব দ্রুত আরেকটি সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। অনেকে এটাকে সঠিক মনে করেন, আবার অনেকে একটু ধীরে এগোতে চান। এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা বলেন, এক্ষেত্রে ধীরে এগোনোই ভালো। দ্রুত কারো সঙ্গে জড়িয়ে পড়লে ভুল করার আশঙ্কা থাকে। এতে জীবনে আরো বিপর্যয় নেমে আসতে পারে। তাই নতুন সম্পর্কে জড়াতে হলে একটু বুঝে-শুনে নিন।

1