অর্থলোভী বাবার কারণেই ধ্বংসের পথে নেইমারের ক্যারিয়ার?

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ ক্যারিয়ারের খুব বাজে সময় কাটাচ্ছেন ব্রাজিল সুপারস্টার নেইমার। একের পর এক ইনজুরি তো আছেই, সেইসঙ্গে নিজের ক্লাবের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না। অবস্থা এমন পর্যায়ে দাঁড়িয়েছে যে, ফ্রান্সের শীর্ষ ক্লাব পিএসজি ছাড়তে পারলে বাঁচেন নেইমার। কিন্তু যাবেন কোথায়? এত টাকায় তো তাকে কেউ কিনতে রাজী নয়। এমনকী সাবেক ক্লাব বার্সেলোনাও তাকে ফেরাতে চায় না। এমতাবস্থায় ফুটবল বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নেইমারের বাবার অর্থ লিপ্সার কারণেই অসময়ে ক্যারিয়ার ধ্বংস হতে বসেছে নেইমারের!

২০১৭ সালের আগস্টে ট্রান্সফারের বাজারে বিশ্বরেকর্ড সৃষ্টি করে ২২২ মিলিয়নের বিনিময়ে বার্সেলোনা থেকে পিএসজিতে যান নেইমার। স্পেনের জায়ান্ট ক্লাবটি ছেড়ে অপেক্ষাকৃত নিচু মানের ক্লাবে যাওয়ার পেছনের কারণ সম্পর্কে অনেক কিছুই শোনা গিয়েছিল। বার্সেলোনায় নাকি মেসির ছায়া হয়ে থাকতে হচ্ছিল নেইমারকে। এজন্যই নাকি ব্যালন ডি’অরের মতো পুরস্কার জুটছিল না তার কপালে। তখন বিশেষজ্ঞরা বলেছিলেন, ব্যালন ডি’অর বিবেচনার সময় স্প্যানিশ কিংবা ইংলিশ ক্লাবগুলোর চেয়ে অনেক পিছিয়ে থাকে ফরাসি লিগের ক্লাবগুলো। কিন্তু নেইমার তা কানে তোলেননি।

নেইমারের পিএসজিতে যাওয়ার কারণ হিসেবে পরবর্তীতে আরও একটি বিষয় সামনে চলে আসে। তা হলো, নেইমারে বাবা নেইমার সিনিয়রের অর্থের প্রতি লোভ। কাতারি মালিক নাসের আল খেলাইফির ক্লাব পিএসজিতে নেইমারকে বিশাল অংকের ট্রান্সফার ফি ছাড়াও বহুগুণ বেশি সুযোগ সুবিধা দেওয়া হয়। ব্যক্তিগত বিমান পর্যন্ত দেওয়া হয়েছে। এত পরিমাণ অর্থের লোভ সামলাতে না পেরেই নাকি ছেলেকে বার্সেলোনা থেকে ছাড়িয়ে এনেছেন নেইমার সিনিয়র! কিন্তু পিএসজিতে গিয়ে ফল হয়েছে উল্টো। বিপুল পরিমাণ টাকা এবং বিলাসী জীবন হয়তো জুটেছে; কিন্তু ফুটবলার নেইমারের কদর কমে গেছে দিনে দিনে! একের পর এক ইনজুরিতে পারফর্মেন্সও পড়তির দিকে। পরিস্থিতি এখন এমন পর্যায়ে গেছে যে, নেইমারের পেছনে এত টাকা ব্যয় করতে কোনো ক্লাব রাজী নয়।

পিএসজির সঙ্গেও নেইমারের সম্পর্ক এখন সুবিধার নয়। সম্প্রতি বিনা নোটিশে ক্লাবটির প্রাক-মৌসুম অনুশীলনে যোগ দেননি নেইমার। এজন্য পিএসজি বেজায় ক্ষিপ্ত হয়ে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের হুমকি দিয়েছে। কিছুদিন আগে পুরনো ক্লাব বার্সেলোনায় ফেরার আকাঙ্খার কথা জানিয়েছিলেন নেইমার। কিন্তু বার্সা প্রেসিডেন্ট জোসেফ মারিয়া বার্তামেউ স্পষ্ট বলে দিয়েছেন, নেইমারকে কেনা সম্ভব নয়। অন্যদিকে আরেক জায়ান্ট ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ নেইমারকে কিনতে চাইলেও সোজা না বলে দিয়েছেন কোচ জিনেদিন জিদান।

হাতের লক্ষী পায়ে ঠেলা নেইমারের এখন বড় কোনো ক্লাবে জায়গা হচ্ছে না! মাঝারি ক্লাবগুলো এত টাকায় তাকে কিনতে পারবে না। আর যে ব্যালন ডি অরের স্বপ্নে তিনি বার্সা ছেড়েছিলেন, সেটাও দূর অস্ত। মেসি-রোনালদো পরবর্তী তারকা হিসেবে বিপুল সম্ভাবনা জাগিয়েছিলেন নেইমার। তাকে নিয়ে একসময় টানাটানি চলত বিভিন্ন ক্লাবের মধ্যে। কিন্তু এখন সবাই মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। টাকার প্রতি লোভই কি নেইমারের এই সম্ভাবনাময় ক্যারিয়ার ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেল?

1