বিএনপি সরকার এই ষড়যন্ত্র করেছিল- ভিপি বাদল

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ  জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ বাদল বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষ শান্তি চায় আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর নেতৃত্বাধীন সরকার মানুষকে শান্তি দিচ্ছেন। তাঁর নেতৃত্বে এদেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

বুধবার (২১ আগস্ট) বিকেলে এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন। জেলা আওয়ামী লীগের ব্যানারে চাষাঢ়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ২১ বার হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। বলা হয়, আল্লাহ রাব্বুল আলামিন ফেরেশতাদের মাধ্যমে তাকে রক্ষা করেছেন। ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা করা হয়েছিল হাওয়া ভবন থেকে। বিএনপি সরকার এই ষড়যন্ত্র করেছিল। তারেক জিয়া, বাবরদের পরিকল্পনা ছিল বাংলার মাটিতে বঙ্গবন্ধুর মতো তার কন্যাকেও হত্যা করা। শেখ হাসিনা মৃতুঞ্জয়ী। অজস্র মৃত্যুর মধ্য দিয়ে তিনি বাংলার মানুষের মুখে হাসি তুলে ধরবেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘সামনে যে মানুষগুলো বসে আছেন তারা কেউ এমপি, মন্ত্রী, চেয়ারম্যান কিংবা মেম্বার হতে চান না। তারা কেবল শান্তিতে বসবাস করতে চায়। মাতৃতুল্য বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ শান্তিপূর্ণভাবে পরিচালিত হচ্ছে। এখন মানুষ শান্তিতে আছে। রিকশাওয়ালা থেকে শুরু করে ফুটপাতের দোকানদারও বলবে, এখন সন্ত্রাস নাই, চাঁদাবাজ নাই।’

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘বাংলার মাটিতে হিন্দু, মুসলমান, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি সবাই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশে বসবাস করছেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা শান্তি চান।’

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাইয়ের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন, সহ সভাপতি মিজানুর রহমান বাচ্চু, সংরক্ষিত নারী আসনের সাবেক সাংসদ হোসনে আরা বেগম বাবলী, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম সাইফউল্লাহ বাদল, সাধারণ সম্পাদক এম শওকত আলী, সোনারগাঁ থানা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুল ইসলাম ভূইয়া, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ডা. আবু জাফর চৌধুরী, ইকবাল পারভেজ, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ্ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন সাজনু, ফতুল্লা থানা যুবলীগের সভাপতি মীর সোহেল আলী, জেলা কৃষক লীগের সভাপতি নাজিমউদ্দিন, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. জুয়েল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ দুলাল, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফায়েত আলম সানি, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আজিজুর রহমান আজিজ, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রাফেল প্রধান, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসনাত রহমান বিন্দু প্রমুখ।

1