স্থানীয় প্রশাসনকে কায়সার হাসনাতের হুশিয়ারী

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ ১৫ আগস্ট জাতীয় শোকদিবস ও ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলা দিবস উপলক্ষে সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে মোগরাপাড়া উপজেলা পার্টি অফিসের সামনে শোকসভার সোনারগাঁয়ে সাবেক সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত বলেছেন, দলের স্বার্থে আমরা এ আসনটি জাতীয়পার্টির জন্য ছেড়ে দিলেও আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাই আমাদের সোনারগাঁয়ের প্রত্যেকটি আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীকে মুল্যায়ন করতে হবে। প্রত্যেকটি ইউনিয়নের নেতাকর্মীদের মুল্যায়ন দিতে হবে। যদি কোন নেতাকর্মী অধিকার থেকে বঞ্চিত হয় তাহলে আমরা তার অধিকার আদায়ে ব্যবস্থা করবো। আমি শুনি আমাদের নেতাকর্মীদের উপজেলা প্রশাসন পৌর প্রশাসন ও থানা প্রশাসন কোন মুল্যায়ন করে না। আজ থেকে উপজেলা ও প্রশাসন পৌরসভা প্রশাসন কোন সিদ্ধান্ত নিতে হলে পৌরসভার নেতা ও আমাদের সাথে পরামর্শ করে নিতে হবে। আপনারা এখন প্রশাসনে বসে শেখ হাসিনার উন্নয়নের সব অধিকার ভোগ করবেন আর আমাদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শ শিখাবেন এটা চলবে না চলতে দিব না। আমাদের আওয়ামীলীগের রাজনীতি ও আদর্শ শিখাতে আসবেন না। আমরা আন্দোলন সংগ্রাম করে এখানে এসেছি, দলের জন্য হাত ভেঙ্গেছি দলের নেতাকর্মীরা নিয়ে জেল খেটেছি তাই আমাদের রাজনীতি শিখাতে আসবেন না। আপনারা আপনাদের দায়িত্ব পালন করুন। কোন পেতাত্মার হুকুম মানবে না।
তিনি আরো বলেন, সোনারগাঁয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক কমিটি বলে যে গুজব শুনছেন সে আহবায়ক কমিটি বলে কিছু নেই। যারা কমিটি করেছে তারা একটি বেকুবের দল তারা জানেনা আওয়ামীলীগের কমিটি করতে হলে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের সাথে কথা বলতে হয়। কিন্তু তারা এতই বোকা যে কমিটিতে যাদের রেখেছেন তারাও জানে না তারা কমিটিতে আছেন। তাদের বানানো কমিটি তৃনমুল নেতারা মানে না মানবে না। এ সময় তিনি প্রশাসনকে উদ্দেশ্য করে বলেন,
এ সময় কায়সার অন্য দলের নেতাদের হুসেয়ারী উচ্চারন করে বলেন, আগামী ১ তারিখের পর থেকে কোন বাহিরের শক্তিতে উপজেলা আওয়ামীলীগ চলবে না। আওয়ামীলীগ চলবে শেখ হাসিনার নির্দেশে এবং আজকে মঞ্চে যারা আছেন তাদের নির্দেশে। আমাদের নেতাকর্মীদের সর্ম্পকে কেউ কোন কোন বাজে মন্তব্য করে এবং গায়ে হাত দেয় তাহলে সবাই মিলে তার তাৎক্ষনিক তার দাতভাঙ্গা জবাব দিয়ে দেয়া হবে। আমাদের মধ্যে ঐক্য ছিলনা বলে নেতাকর্মী নির্যাতিত হয়েছে অবহেলিত হয়েছে। অনেক সহ্য করেছি আর সহ্য করা হবে না। নেতাকর্মীর উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা ঐক্যবদ্ধ থাকবেন ঐক্যবদ্ধ থেকে সকল ষড়যন্ত্রের মোকাবেলা করবেন। কারন আপনারাই সোনারগাঁয়ে ২৩ বছর পর নৌকাকে জয়লাভ করিয়েছেন। আপনাদের শক্তি আর সাহসের জন্যই সেদিন সোনারগাঁ থেকে নৌকা জয়লাভ করেছিল। এখন কোথায় গেল আপনাদের সেই শক্তি। আমরা আপনাদের শক্তি ফিরিয়ে দিতে ঐক্যবদ্ধ হয়েছি। আমাদের জয় নিশ্চিত।

1