প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তন্য়া সায়েমা ওজেদ পুতুল অটিজম শিশুদের নিয়ে কাজ

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার সুভাষ চন্দ্র সাহা বলেছেন বতর্মান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তন্য়া সায়েমা ওজেদ পুতুল অটিজম শিশুদের নিয়ে কাজ করছেন দীর্ঘ দিন যাবদ সারা বিশ্বে,
তিনি বিশ্ব সাস্হ্য সেবার এওয়ার্ডও পেয়েছেন। এটা শুধু উনার জন্য নয় বাঙালী জাতি হিসেবে আমরাও গর্বিত হয়েছি।এবং সরকার অটিজম শিশুদের সুরক্ষায় ২০১৩ সালে আইন তৈরী করেছ,শুধু তাই নয় দেশের উন্নয়নের স্রোত ধারায় যুক্ত করেছে সারা দেশের অটিজম শিশুদের, এবং ১৪ টি মন্ত্রানালয়ের সম্ময়ে ট্রাক্স কমিটি করে দিয়েছ অবহিলত এশিশুদের জন্য। ২০১১ সালে দক্ষিন এশিয়ার মধ্যে প্রথম আমাদের দেশে সম্মেলন হয়। সেই সুবাদে আমাদের দেশেও এ অটিজম শিশুদের নিয়ে হাসিনা রহমান সিমু সহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান সুনামের সহিত তাদের কে সেবার মাধ্যমে শিক্ষিত হিসেবে গড়ে তুলছেন। সেবার মন মানিসকতা নিয়ে কঠোরভাবে প্ররিশ্রম করছেন এটা অতান্ত্য কঠিন কাজ,মনে রাখবেন ভালো কাজ করতে গেলে সমালোচনা হবেই তার পর এগিয়ে যেতে হবে। একদিন যখন সমালোচনাকারীরা বুঝতে পারবে তখন তারাই এগিয়ে আসবে সহোযগিতার হাত বারিয়ে দিতে। তাইসমাজের প্রতিটি মানুষকেই এর পৃষ্ঠপোষকতায় এগিয়ে আসা।তিনটি বছর হয়তো চলে গেছে, আমরা দেখতেে পাবো আগামীদীনে এ অটিজমটি সফলতার উচ্চ শিখরে অবস্হান করবে। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫ টায় এবন্দরের ফরাজি কান্দা এলাকায় হাসিনা অটিজম চাইল্ড একাডেমির ৩ য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকি ও কেক কাটা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।এসময় হাসিন রহমান সিমুর সভাপতিত্বে ও ডাঃমুনতাসির আহম্মদের সন্ঞালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে ব্যবহার আরো বক্তব্য রাখেন, বন্দর থানার তদন্ত ওসি আজহারুল ইসলাম, আনন্দ ধামের মহাসচিব আজিজুল ইসলাম, অতিরিক্ত চেয়ারম্যান মোঃ শাহ আলম, পরিচালক শ্যামল দ্ত্ব, আলম চা্ঁন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষিকা লুত্ফা বেগম,শেখ মনির হোসেন, ইমরান আহমেদ, শাহাদাত হোসেন, আনোয়ার হোসেন আনু, রন্জিত সহ প্রমুখ। এর আগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আঙিনায় ২ টি গাছের চারা রপোন করেন অতিথিবৃন্দ এবং আলোচনা সভা শেষে কেক কেটে অতিথিরা অটিজম শিশুদের খাইয়ে দেন।

1