শাহরুখের হলফনামা চেয়েছেন হাইকোর্ট

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ বলিউড তারকা শাহরুখ খান একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়ে ফ্যাসাদে পড়েছেন । এ নিয়ে মামলা দায়েরের প্রেক্ষিতে কলকাতা হাইকোর্ট গতকাল বৃহস্পতিবার শুনানি শেষে শাহরুখ খানের হলফনামা পেশ করার আদেশ দিয়েছেন।

ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ প্লানিং অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট (আইআইপিএম) নামের এক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপনে অংশ নেন শাহরুখ খান। বিজ্ঞাপনে শাহরুখ খানের কণ্ঠে ওই প্রতিষ্ঠানে ভর্তির আমন্ত্রণও জানানো হয়। শাহরুখ খানের মতো একজন সেলিব্রিটির আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভারতীয় বিমানবাহিনীর এক অবসরপ্রাপ্ত কর্মী পুরুলিয়ার বাসিন্দা প্রেমানন্দ মুখোপাধ্যায় ভর্তি করান তাঁর ছেলেকে। তিন বছরের মধ্যে বন্ধ হয়ে যায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি। এরপরেই প্রেমানন্দ কলকাতা হাইকোর্টে একটি মামলা দায়ের করে বিচার প্রার্থনা করেন।

এই মামলার শুনানি হয় গতকাল কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি দেবাংশু বসাকের এজলাসে। সেখানে শাহরুখ খানের আইনজীবী বলেন, শাহরুখ খান ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ব্রান্ড অ্যাম্বাসেডর ছিলেন না। তিনি কয়েকটি বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়েছিলেন মাত্র। এরপরেই বিচারক পুজোর ছুটির দুই সপ্তাহ পর এ নিয়ে শাহরুখ খানের হলফনামা বা অ্যাফিডেভিট তলব করেন।

আদালতে প্রেমানন্দর আইনজীবী জানান, ১৯৭৩ সালে আইআইপিএম চালু হয় ম্যানেজমেন্ট কোর্স বিবিএ এবং এমবিএ পড়ানোর জন্য। দেশজুড়ে এই প্রতিষ্ঠানের ২১টি ক্যাম্পাসও রয়েছে। কিন্তু ২০১৫ সালে জানা যায়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি চালানোর জন্য সরকারের কোনো বৈধ অনুমতি নেই। এরপরেই বন্ধ হয়ে যায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি।

এই প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হওয়ার জন্য বহু শিক্ষার্থী ব্যাংক থেকে ১৮ লাখ রুপি পর্যন্ত ঋণও নেয়। প্রেমানন্দর আইনজীবী প্রশ্ন করেন, এখন তাঁদের কী হবে?

1