ত্রিপল হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার খুনী আব্বাসের

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ  নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে  আলোচিত মা ও দুই মেয়েকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার একমাত্র আসামী আব্বাস ব্যাপারী হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছেন।

শুক্রবার বিকেল নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ মিল্টন হোসেনের আদালতে হত্যাকান্ডের লোমহর্ষক বর্ণনা দিয়ে ১৬৪ ধারায় এ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন। নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, শুক্রবার দুপুর ১টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত দীর্ঘ তিনঘন্টা ব্যাপী আব্বাস উদ্দিনের দেয়া জবানবন্দি সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ মিল্টন হোসেনের আদালতে রেকর্ড করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

এর আগে বৃহস্পতিবার নিহত নাসরিন বেগমের স্বামী মোহাম্মদ সুমন বাদি হয়ে আব্বাস ব্যাপারীকে আসামী করে  সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

গত ১৭ সেপ্টেম্বর রাতে আব্বাস ও তার স্ত্রী ইয়াসমিনের ঝগড়া হয়ে। পরে সুমনের শ্যালক নাসরিনের ভাই হাসান বড় বোনের স্বামী আব্বাসকে মারধর করে। পরদিন সকালে হাসান তার বড় বোন ইয়াসমিন ও তার মেয়ে সুমাইয়া সহ সুমনের বাসায় বোন নাসরিনের কাছে চলে আসে।

১৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় সুমন কর্মস্থল সিদ্ধিরগঞ্জস্থ জোনাকী পেট্রোল পাম্প থেকে মিজমিজি সিআইখোলাস্থ আনোয়ার মালিকানাধীন ৬তলা ভবনের ভাড়া বাসায় এসে স্ত্রী ও সন্তানদের গলাকাটা রক্তাক্ত লাশ এবং তার স্ত্রীর বড় বোনের প্রতিবন্ধী মেয়ে সুমাইয়াকে রক্তাক্ত আহত অবস্থায় খাটের উপর আহতবস্থায় দেখতে পায়। পরে তার ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এসে  পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে।

পরে ওই দিন সন্ধ্যায় সিদ্ধিরগঞ্জ পাওয়ার হাউজের পাশে একটি কমিউনিটি সেন্টারের খাবার টেবিলের নীচে লুকিয়ে থাকা অবস্থায় পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

1