কষ্ট ভুলতে নেশা করতেন পূজা ভাট!

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: নব্বই দশকের জনপ্রিয় নায়িকা পূজা ভাট। বাবা মহেশ ভাটের হাত ধরেই নায়িকা হিসেবে বলিউডে আবির্ভাব তার। সে সময় বেশ কিছু হিট ছবি উপহার দিয়েছেন তিনি। তবে অভিনয় ছেড়ে গত এক দশক ধরে সাফল্যের সঙ্গে করছেন ছবি প্রযোজনা। সম্প্রতি এক টুইটে পূজা ভাট ফাঁস করলেন ব্যক্তিগত জীবনের এক অজানা গল্প। জানালেন, হতাশার কবলে পড়ে অনেক বছর নেশায় ডুব দিয়েছিলেন। এরপর স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এসেছেন। পূজা বলেন, আমিও আপনাদের মতো যন্ত্রণা সয়েছি।
আঘাতের ধাক্কায় পড়েছি। কষ্ট ভুলতে নেশা করেছি। প্রথমে আমি মদ খেতাম। পরে মদ আমাকে খেয়েছে। টলোমলো পায়ে অনেকবার ব্যাথা পেয়েছি, পড়েছি। এরপর নেশার ইতি টেনে গত দুই বছর ১০ মাস ধরে আমি আবার আপনাদের সেই আগের পূজা ভাট। বাবা মহেশ ভাটের ছবি ‘সড়ক টু’তে আলিয়া ভাটের সঙ্গে অভিনয় করছি। খোলা হাওয়ায়, নীল আকাশের নিচে বুক ভরে শ্বাস নিচ্ছি। আমি পারছি। আপনারা পারবেন না! ‘ড্যাডি’ ছবির মাধ্যমে অভিনয়ে অভিষেক হয় পূজা ভাটের। এরপর সড়ক, দিল হ্যায় কে মানতা নেহি, স্যার’র মতো হিট ছবি উপহার দেন। আচমকাই নেশার কবলে পড়ে সবকিছু এলোমেলো হয়ে যায়। সেই ধাক্কা সামলে বহু বছর পরে আবার বাবার ছবিতেই প্রত্যাবর্তন। পূজা লেখেন, জীবন আমাকে কম পোড়ায়নি। এরপরেও আমি যদি পুড়ে পুড়ে সোনা হতে পারি, আপনারাও পারবেন। নেশা কোনো সমস্যার সমাধান নয়। নতুন সমস্যার কারণ।

1