সাংবাদিক নয়নের ছেলের দায়িত্ব নিলেন – নাহিদা বারিক

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:  না ফেরার দেশে চলে গেলেন সবার প্রিয় ফটো সাংবাদিক মেহেদী হাসান নয়ন (ইন্না.. লিল্লাহি..বাজেউন)। ফটো সাংবাদিক নয়নের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিক ছুটে যান নগরীর দেওভোগ পাক্কারোড গার্মেন্টস গলির শেষ মাথার বাসায়। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী ও নাভিল (৭) নামের এক পুত্র সন্তান রেখে গেছেন।
রবিবার বাদ এশা দেওভোগ পাক্কারোড গার্মেন্টস গলির শেষ মাথা স্কুল মাঠ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয় জানাজা।
নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিক ফটো সাংবাদিক মরহুম মেহেদী হাসান নয়নের স্ত্রী-সন্তান সহ তার শোকসন্ত পরিবারের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করে সমবেদনা জানিয়ে বলেন, আজ থেকে মরহুম নয়নের একমাত্র ছেলে নাভিল (৭) এর লেখাপড়া সহ সকল দায়দায়িত্ব আমি নিলাম। মহান আল্লাহ্ যেন নয়নকে বেহেস্ত নসিব করেন (আমীন)। তার স্ত্রী ও তার পরিবারের সকল সদস্যদের শান্তনা দেওয়ার ভাষা আমার জানা নেই। প্রিয়জন হারনোর বেদনা যে কত বড় কঠিন বিষয় আমাদের সকলেরই তা জানা রয়েছে। নয়ন সর্বদা আমাদের নয়নের মাঝেই বেঁচে থাকবে অনন্তকাল।
চলতি বছরের গত ৩১ অক্টোবর উন্নত চিকিৎসার জন ফটো সাংবাদিক নয়নকে ভারতের বেঙ্গুলুর সি,এম,সি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল। সেখান থেকে দুইদিন পর তাকে রাজধানী ঢাকার শ্যামলী বাংলাদেশ স্পেশালাইড হসপিটালে ভর্তি করানো হলে ভর্তিরত অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
বিদেশে যাওয়ার আগে এ্যায়ারপোর্টে প্রবেশের শেষ মূহুর্তে তার ছোট ছেলে নাভিলকে জড়িয়ে ধরে কেঁদে নয়ন বলছিলো, বাবারে আমি যে তোর জন্য কিছুই করতে পারলাম না। বুকের ভিতরে চাপা কষ্ট আর সারা শরীরে ক্যান্সারের জ্বালা যন্ত্রনা নিয়ে আমাদের সকলকে কাদিয়ে চলে গেলেন ফটো সাংবাদিক মেহেদী হাসান নয়ন।

1