জাহাঙ্গিরের কয়েল কারখানায় পুণরায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:  সিদ্ধিরগঞ্জে মশার কয়েল তৈরির কারখানায় গ্যাসের অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার একদিন পর পুণরায় অবৈধ গ্যাসের সংযোগ দিয়ে কয়ের তৈরির কার্যক্রম চালু হয়েছে একটি কয়েল কারখানায়। সিদ্ধিরগঞ্জ মৌচাক (চিশতীয়া বেকারী) এলাকায় জাহাঙ্গীর মালিকানাধীন ঐ কারখানায় বুধবার জেলা প্রশাসকের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সিদ্ধিরগঞ্জ রাজস্ব সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) রোমানা আক্তার নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগের দায়ে জাহাঙ্গীর মালিকানাধীন কয়েল কারখানার অবৈধ গ্যাস বিচ্ছিন্ন করে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়।
উল্লেখ্য, বুধবার দুপুর ১২টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত জেলা প্রশাসকের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সিদ্ধিরগঞ্জ রাজস্ব সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) রোমানা আক্তারের নেতৃত্বে অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্নে অভিযান পরিচালনা করে তিতাস কর্তৃপক্ষ। এ সময় অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগের দায়ে ৫টি কয়েল কারখানা মালিককে ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট। মিজমিজি পশ্চিমপাড়া (মাদ্রাসা রোড) ও মৌচাক (চিশতীয়া বেকারী সংলগ্ন) এলাকার আলম, জাহাঙ্গীর, পারভেজ ও আনোয়ার মালিকানাধীন ৫টি কয়েল কারখানার অবৈধ গ্যাস বিচ্ছিন্ন করা হয়।
স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরেই কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি কয়েল কারখানায় অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগ নিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। এসব ব্যবসায়ীদের সাথে তিতাসের কিছু অসাধু কর্মকর্তাদের যোগসূত্র রয়েছে। নইলে বারবার কেটে দেওয়ার পরও কীভাবে তারা অবৈধভাবে সংযোগ নেয়? আর্থিক সুবিধা পেয়ে থাকে বলেই এমন অনৈতিক কর্মকান্ডে তারা লিপ্ত হয় বলে ধারণা স্থানীয়দের।
এ বিষয়ে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন (টিএন্ডডি) কোম্পানির নারায়ণগঞ্জ জোনাল বিপণন অফিসের সহকারী প্রকৌশলী এসএম হাসান শাহরিয়ার জানান, পুণরায় অবৈধ গ্যাস সংযোগের ব্যাপারে আমরা দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো এবং এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে। আর তিতাসের আসাধু ব্যক্তিদের জড়িত থাকার বিষয়ে সুষ্ঠু তথ্য পেলে উপরে জানিয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

1