নারায়ণগঞ্জের ২০ সুতা ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে মামলা

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ   নারায়ণগঞ্জে বন্ড সুবিধায় আমদানিকৃত সুতা অবৈধভাবে খোলাবাজারে বিক্রির অভিযোগে  ২০ জন সুতা ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা করেছে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি আসাদুজ্জামান  মামালার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন, ২৪ ডিসেম্বর মঙ্গলবার রাতে শুল্ক কাস্টমস অ‌্যান্ড বন্ড কমিশনারেট এর সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মো. আতিকুর রহমান মো. নাহিদুল হাসান বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা দুটি দায়ের করেন।এ মামলায় মামুন নামের এক ব্যবসায়ীকে পুলিশ আটক করেছে।  মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ৮ ডিসেম্বর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জ শহরের টানবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে সর্বমোট ৯ হাজার ৪৪ কেজি বন্ড সুবিধায় আমদানি করা সুতা উদ্ধার করা হয়। যার বাজার মূল্য ১ কোটি টাকা।

 

আসামিরা হলেন- হাজী বিল্লাল (বিসমি অ্যান্ড ট্রেডিং), ব্যবসায়ী হাজী ইসমাইল (জেমি এন্টারপ্রাইজ), ফরহাদ (টানবাজারের ব্যবসায়ী), সুব্রত রায় (এস এস থ্রেড এক্সেসসরিক্স), বিপুল মণ্ডল (শুভা এন্টারপ্রাইজ), পুলক চৌধুরী (মেসার্স পুলক চৌধুরী), মো. সেলিম রেজা (এইচ এস থ্রেডিং), মো. গোলাম কিবরিয়া মামুন  (তোতা ইয়ার্ন থ্রেডিং), আব্দুল মান্নান মিয়া (জামান ইয়ার্ন থ্রেডিং) ও খান নজরুল ইসলাম (শিমুলিয়া থ্রেড ইন্টারন্যাশনাল)।

এছাড়াও গত ১৪ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জ শহরের সুতারপাড়া, বংশাল রোড এলাকার সাদ ট্রেডার্স এবং আজাদ ট্রেডার্সের গুদামে অভিযানেও ২৫ হাজার ৮৩৬ কেজি অবৈধ বন্ডেড সুতা আটক করা হয়। যার বাজার মূল ৩ কোটি টাকা।

এ ঘটনায়ও আলাদা আরেকটি মামলা দায়ের করা হয়। আসামিরা হলেন- মো. জহির হোসেন (মেসার্স সাদ ট্রেডার্স), মো. আওলাদ হোসেন (মেসার্স আজাদ ট্রেডার্স), হাজী ইসমাইল (জেমি এন্টারপ্রাইজ), ফরহাদ (টানবাজারের ব্যবসায়ী), মো. আমিনউদ্দিন (সুতাঘর), গোবিন্দ্র চন্দ্র সাহা (রিতা ট্রেডার্স), মো, আইয়ুব আলী, মো. সেলিম (যাকি এন্টারপ্রাইজ), সমির সাহা (এনবি ট্রেডিং), রুহুল আমিন (আমিন ব্রাদার্স)।

1