মুসলমানদের জন্য ভালোবাসা দিবস হারাম–পলাশ

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:  জাতীয় শ্রমিক লীগ নেতা ও আলীগঞ্জ ক্লাবের সভাপতি আলহাজ্ব কাউসার আহমাদ পলাশ বলেছেন,ভ্যালেন্টাইন মানে ভালবাসা নয়। ভ্যালেন্টাইন একজন ব্যক্তির নাম। সে মন্দিরে গিয়ে অপকর্ম করেছিল যার কারনে তাকে মেরে ফেলা হয়েছিল। ভ্যালেন্টাইন্স ডে বা বিশ্ব ভালবাসা দিবস আমাদের জন্য নয়। মুসলমানদের জন্য ভ্যালেন্টাইন্স ডে হারাম। আমি আমার স্ত্রীকে, সন্তানকে এবং আমার বাবা মাকে প্রতিদিন ভালবাসবো।কোন নির্ধারিত দিনে ভালবাসতে হবে কেন? ভালবাসার কোন নির্ধারিত দিন নেই । আমরা ভালবাসবো প্রতিদিন। তিনি তার বক্তব্যে আরো বলেন, শিশু কিশোরদের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চায় মনোনিবেশ করতে হবে।কেননা ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চা মাদকমুক্ত সুন্দর জীবন গঠনে অগ্রনী ভুমিকা পালন করে। যেকোনো খারা প কাজ থেকে নিজেদের রক্ষা করে। ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চায় জড়িতরা কখনোই বিপদগামী হতে পারে না। জ্ঞানের পরিধি বিস্তৃত করে শিক্ষা আর শারীরিক ও মানুষিক উৎকর্ষ সাধন করে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক চর্চা।তিনি তার বক্তব্যে আরো বলেন, সফল প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে হাটছে। বাংলার দামাল ছেলেরা যুব বিশ্বকাপ জয় করে ১৬ কোটি মানুষের স্বপ্ন পুরণ করেছে। বংগবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিলেন তা জননেত্রী শেখ হাসিনার মাধ্যমে বাস্তবায়ন হচ্ছে। জননী এল পি জি”র পৃষ্টপোষকতায় ও আলীগঞ্জ বেপারী বাড়ীর উদ্যোগে মুজিব জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে এল ই ডি টিভি কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। শুক্রবার ১৪ ফেব্রুয়ারী বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নং ওয়ার্ডস্থ আলীগঞ্জ খেলার মাঠে এ টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। আলীগঞ্জ ক্লাবের সহসভাপতি মোঃ ফরিদ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলীগঞ্জ সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ নুরুল ইসলাম মেম্বার, কোষাধ্যক্ষ হাজী মোঃ আরিফুল ইসলাম, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া সাত্তার, দক্ষিন বংগ লাইন সম্পাদক হাজী মোঃ আবুল হোসেন প্রমুখ।ফাইনাল খেলায় অলি হাজী এন্টার প্রাইজ ৩৮ রানে আলীগঞ্জ ওয়ারিয়র্স ক্লাবকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি এল ই ডি টিভি অর্জন করে। চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলের অধিনায়কের হাতে ট্রফি তুলে দেন প্রধান অতিথি আলহাজ্ব কাউসার আহমাদ পলাশ। টুর্নামেন্ট পরিচালনা করেন নোমান, রাব্বী, সাজ্জাদ, সাইফুল, পিয়াস ও সাব্বির মাহমুদ সহ প্রমুখ।

1