বিতর্কের মুখে

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:  ভারতের আসামের সংস্কৃতিকে নাকি অপমান করেছেন বলিউড অভিনেত্রী ইয়ামি গৌতম। এমনই এক অভিযোগে আপাতত সরগরম সোশ্যাল মিডিয়া। যদিও নেটিজেনদের পালটা জবাব দিয়েছেন অভিনেত্রী। তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন তিনি। সম্প্রতি আসাম গিয়েছিলেন ইয়ামি গৌতম। সেখানে বিমানবন্দরে তাকে অভ্যর্থনা জানাতে উপস্থিত ছিলেন অনুরাগীরা। হঠাৎই এক অনুরাগী ইয়ামিকে ‘গামোসা’ পরাতে যান। আচমকা এমন কা-ে কিছুটা অস্বস্তিতে পড়েন অভিনেত্রী।
খানিকটা পিছিয়ে আসেন তিনি। এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তে সময় লাগেনি। মুহূর্তে সেটি ভাইরালও হয়ে যায়। ইয়ামির এমন আচরণের সমালোচনা শুরু করে নেটিজেনরা। একাংশের দাবি আসামের মানুষের ভাবাবেগে আঘাত করেছেন ইয়ামি। ‘গামোসা’ আসামের সংস্কৃতির অঙ্গ, ঐতিহ্যের প্রতীক। সেটি পরালে এমন কী ক্ষতি হত? ওই ‘গামোসা’ প্রত্যাখ্যান করে কার্যত তিনি আসামের মানুষকে অপমান করলেন বলে মত নেটিজেনদের। সাধারণত সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন সমালোচনা হলে অনেকাংশে তারকারা রেগে যান। কিন্তু এক্ষেত্রে মেজাজ হারাননি ইয়ামি। ঠান্ডা মাথায় জবাব দিয়েছেন তিনি। টুইটারে এ নিয়ে তিনি একটি নাতিদীর্ঘ পোস্ট করেছেন। সেখানে লিখেছেন, তিনি আত্মরক্ষা করতে চেয়েছিলেন। তাই ওভাবে সরে এসেছিলেন। আর কোনও অভিপ্রায় তার ছিল না। স্পষ্ট ভাষায় অভিনেত্রী জানিয়ে দিয়েছেন, যদি কোনও ব্যক্তি অতিরিক্ত কাছে এলে কোনও নারী অস্বস্তিবোধ করে তাহলে সেই ভাব প্রকাশ করার অধিকার নিশ্চয়ই ওই নারীর আছে? ইয়ামি নিজেও সেই একই কাজ করেছেন। কারও ভাবাবেগে আঘাত করার ইচ্ছে তার ছিল না।

1