বিসিকে সন্ত্রাসী হাবিব-বাচ্চু বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ গার্মেন্টের শ্রমিকদের কন্ট্রাকটার

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:  ফতুল্লার শিল্পনগরী বিসিকের সন্ত্রাসী হাবিব-বাচ্চু বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ এবং আতঙ্কিত গার্মেন্টের শ্রমিকদের কন্ট্রাকটাররা। তাদেরকে জিম্মি করার অপচেষ্টা করছে সন্ত্রাসী বাহিনীরা। গার্মেন্টের শ্রমিকদের কন্ট্রাকটাররা তাদের দাবিকৃত চাঁদা না দেয়া হলে হামলার শিকার হতে হয়। সন্ত্রাসী হাবিব-বাচ্চু বাহিনীর বিরুদ্ধে মামলা করেও রেহায় পাচ্ছে না শ্রমিকদের কন্ট্রাকটাররা। এ সন্ত্রাসী বাহিনীর হাত থেকে রক্ষা পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন কন্ট্রাকটাররা।

এদিকে দাবিকৃত চাঁদা না পেয়ে সন্ত্রাসী হাবিব-বাচ্চু বাহিনীর হামলার শিকার হয়ে আহত গার্মেন্টের শ্রমিকদের কন্ট্রাকটার হেলাল হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। আর হেলালের উপর হামলা করে রক্তাক্ত জখম করার ঘটনায় সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার পর তারা জামিনে বের হয়ে আবারো উৎপাত শুরু করে দিয়েছে। এতে করে হেলালের পরিবার আতঙ্কে জীবন যাপন করছে। এ বাহিনীর হামলায় শিকার হয়েছে নরসিংপুর এলাকার একরাম হোসেন, হযরত আলী, শাসনগাওয়ের ইব্রাহিম। তারা উভয়ে বিসিকে গার্মেন্টের শ্রমিকদের কন্ট্রাকটারী করেন।

সন্ত্রাসী হাবিব-বাচ্চু বাহিনীর বিরুদ্ধে হেলালের মামা আবুল হোসেনের দায়েরকৃত একটি মামলার সূত্রে জানা যায়, হেলাল উদ্দিন বিসিক কলাবাগান এলাকার নুরু মাদবরের ছেলে। সে বিসিকে গার্মেন্টের শ্রমিকদের কন্ট্রাকটারী করে। তার কাছে প্রায় সময় চাঁদা দাবি করে সন্ত্রাসী হাবিব-বাচ্চু বাহিনীর সদস্য। তাদের দাবি বিসিকে কন্ট্রাকটারী করতে হলে তাদেরকে চাঁদা দিতে হবে। তাদের দাবিকৃত চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে গত ১৮ ফেব্রুয়ারী রাতে হেলালকে রাস্তায় একা পেয়ে রাস্তায় আটক করে লাঠিসোটা দিয়ে এলোপাথারী ভাবে পিটিয়ে আহত করে হাবিব-বাচ্চু বাহিনী। হেলালকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে তিনি ঢাকা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এ ঘটনায় হেলালের মামা আবুল হোসেন বাদী হয়ে বিসিকের গুইল্যা মিয়ার ছেলে রাসেল, জজ মিয়ার ছেলে হাবিব, দুলাল মিয়ার ছেলে বাচ্চু, রফিকের ছেলে সজিব, চাঁন মিয়ার ছেলে আকাশ, বাবুল শেখের ছেলে রিপন, আজিজ মুন্সির ছেলে ইয়াসিন, শহিদের ছেলে রবিউলসহ মঞ্জু, ফারুক, মিলন।

এদিকে সন্ত্রাসী হাবিব-বাচ্চু বাহিনীর বিরুদ্ধে ১৮ মার্চ গার্মেন্টস শ্রমিকদের কন্ট্রাকটার ইব্রাহিম খলিলও বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। এ বাহিনীর বিরুদ্ধে আরেক কন্ট্রাকটার হযরত আলীও আদালতে মামলা দায়ের করে। এছাড়াও হাবিব-বাচ্চু বাহিনীর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা সহ নানা অপরাধ কর্মকান্ডের অভিযোগ রয়েছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ইন্সপেক্টর (আইসিপি) আজগর হোসেন জানান, হাবিব-বাচ্চু বাহিনীর বিরুদ্ধে গার্মেন্টস শ্রমিকদের কন্ট্রাকটার ইব্রাহিম খলিল একটি অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনার তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর এ হাবিব ও বাচ্চুসহ অন্যান্যদের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে থানায় একটি মামলাও করেছিল। বিসিকে অপরাধ করে কেউ পাড় পাবে না। অপরাধী যত বড় শক্তিশালী হউক না কেন ছাড় দেয়া হবে না।

1