করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় পোশাক শিল্পে ৫ হাজার কোটি টাকা অনুদান নয় স্বল্প সুদে ঝণ

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:  বাংলাদেশে করোনার প্রভাবে সংকট মোকাবেলায় তৈরি পোশক শিল্পের জন্য প্রধানমন্ত্রী যে ৫ হাজার কোটি টাকা বিশেষ যে প্যাকেজ ঘোষণা দিয়েছেন সেটি আসলে অনুদান নয় বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেন, এটি আসলে ২ শতাংশ হার সুদে ঋণ হিসেবে ব্যাংকের নিকট হতে পোশাকশিল্প মালিকেরা শ্রমিকদের বেতন/ভাতা পরিশোধের জন্য প্রদান করা হবে।

সোমবার ১ এপ্রিল ঢাকায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের প্রেক্ষাপটে বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে এক জরুরী সভায় বাণিজ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

সভায় বাণিজ্যমন্ত্রী কোন কারখানার রপ্তানি আদেশ থাকলে নিজ দায়িত্বে উদ্যোক্তারা প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্যাক্টরি চালাতে পারবেন বলে ঘোষণা দেন।

বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি’র সভাপতিত্বে সভায় বিকেএমইএ এর পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেন সংগঠনটির সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান।

সভায় বিকেএমইএ সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসামন বলেন, বাংলাদেশ সরকারের কাছে আমরা এই কারণে কৃতজ্ঞ যে, করোনা ভাইরাস সংক্রমণকালীন সময়ে পোশাক শিল্পের উদ্যোক্তা শ্রেণী যাতে জুন পর্যন্ত লোন শ্রেণিকৃত না করে সে ব্যবস্থা করেছেন। এছাড়াও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এ শিল্পের জন্য একটি লোন অনুদান দিয়েছেন। এই কারণে আজকের সভায় আমরা কিছুটা হলেও নির্বিঘœ হয়ে অংশগ্রহণ করতে পেরেছি। কুয়েত, আমেরিকা, ভারত, ইরান, চীন সহ অন্যান্য দেশে করোনা সংকটকালীন সময়ে ব্যবসা করার যে সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে এ সুযোগকে কাজে লাগাতে হবে। তিনি আরও বলেন, বিকেএমইএ’র সদস্যভুক্ত প্রতিটি নীটকারখানা যেন, মার্চ মাসের বেতন সময়মত পরিশোধ করে সেবিষয়ে সদস্যভুক্ত কারখানাগুলোকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

আরো উপস্থিত ছিলেন, সংসদ সদস্য সালাম মুর্শেদী, সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন এম.পি. প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউস, মন্ত্রী পরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোঃ জাফর উদ্দীন, এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম, বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক, এনবিআর চেয়ারম্যান, অর্থমন্ত্রণালয় সচিব, সহ সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

1