নারায়ণগঞ্জের দেওভোগে প্রকাশ্য দিবালোকে ব্যবসায়ীকে কুিপয়ে হত্যা

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ  টুয়েন্টিফোর ডটকঃ  নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানাধীন দেওভোগ আদর্শনগর পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ব্যবসায়ীকে দিন দুপুরে এলোপাথারি কুপিয়ে হত্যা করেছে। বুধবার (১ এপ্রিল) সকাল ১১টার দিকে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত শরীফ হোসেন আদর্শনগরের আলাল মাতাব্বরের ছেলে।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, কয়েকদিন আগে স্থানীয় বখাটে ও কিশোর গ্যাংয়ের লিডার শাকিল ও লালনসহ কয়েকজন শরীফ হোসেনের মালিকানাধীন বৃষ্টি ইলেট্রনিক্স ও ফানিচারের দোকানের সামনে তারা প্রায় আড্ডা দেয়াসহ মাদক দ্রব্য সেবন করতো। শরীফ হোসেন তাদের  দোকানের আড্ডা দিতে নিষেধ করে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। বিষয়টি স্থানীয় গনমান্য ব্যক্তিরা মিমাংসা করে দেয়।

কিন্তু কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা বিষয়টি মেনে নেয়নি। বুধবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে কিশোর গ্যাংয়ের এক সদস্য শরীফ হোসেনের  মোবাইল ফোনে বাসা থেকে ডেকে একটি রিক্সার গ্যারেজের সামনে নিয়ে যায়। সেখানে শাকিল ও লালনসহ ১০-১২ জন কিশোর সদস্য শরীফ হোসেনকে কুপিয়ে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।
আদর্শ নগর এলাকার স্থানীয় একটি বাড়ির সিসি টিভির ফুটেজে দেখা যায়, কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা রামদা, বড় ছোড়া, লোহার রড ও লাঠি সোঠা নিয়ে ১০-১২ জনের একটি দল দৌড়ে রিক্সার গ্যারেজের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এর ১ মিনিটের মধ্যেই আশেপাশের লোকজন দৌড়ে ছুটাছুটি করে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যাচ্ছে। দুই তিন মিনিটের মধ্যে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা দৌড়ে আবার পালিয়ে যাচ্ছে।নিহতের বাবা আলাল মাতাব্বর জানান কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য শাকিল লালনসহ কয়েকজন পূর্ব শক্রুতার জের ধরে তার একমাত্র ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। তিনি ছেলের হত্যাকারিদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি করেন।

শালিক ও লালল এলাকায় র্দীঘ দিন ধরে সন্ত্রাসী কার্যকলাপ করে আসছিলো। কিন্তু পুলিশ তাদের গ্রেফতার করেনি। যে কারনে স্থানীয় কতিপয় প্রভাবশলী নেতার আশ্রয়ে প্রশ্রয়ে তারা আমার ছেলেকে হত্যা করে আমার বুক খালি করে দিয়েছে।

পুর্ব শ্রত্রুতার জের ধরে শরীফ হোসেনের এক ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে কিশোর সন্ত্রাসীরা। হত্যাকান্ডের সময়ের কিছু সিসি টিভির ফুটেজ সংগ্রহ করে হত্যাকারিদের সনাক্ত করা হয়েছে। তাদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে জানালেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।

1