বন্দরে সেফটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে অন্তঃসত্ত্বা নারী ও দুই শিশু নিহত

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ  নারায়ণগঞ্জের বন্দরে বহুতল ভবনের সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে দুই শিশু ও অন্তঃসত্ত্বা এক নারী মারা গেছে। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সকাল ৬টার দিকে উপজেলার উইলসন রোডের দীঘিরপাড় মোল্লাবাড়িতে। বাড়ির মালিক রফিকুল হাসান। বিস্ফোরিত ভবনের নিচতলার বাসিন্দা খোরশেদ আলমের দুই ছেলে মাসনুন (১২) ও জিসান (৮) ঘটনাস্থলেই মারা যায়। এবং গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়ার পথে পাশের বাড়ির হুমায়ূন কবিরের ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী লাবনী আক্তার (৩০) মারা যান বলে জানিয়েছেন পুলিশ।
এদিকে বিস্ফোরণে পাশের একটি ৪ তলা বাড়ি ও একটি টিনশেড বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আহত হন আরও ৫ জন। তারা হলেন, নিহত নারীর মেয়ে নাবিলা, তামান্না, শহীদ, রেকমত শেখ, রুবেল।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, উইলসন রোডের রফিকুল ইসলামের পাঁচতলা ভবনটির নিচতলায় সকাল ৬টার দিকে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয়। সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণ হওয়া ঘরটিতে ঘুমোচ্ছিল ওই দুই শিশু।
বিস্ফোরণে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় দুই ভাইয়ের। গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান অন্তঃসত্ত্বা নারী। আহত অবস্থায় বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন আরও ৫ জন।
নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফীন বলেন, ভোর সাড়ে ৫টার দিকে এ দূর্ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলেই একই পরিবারের ২জন এবং পরবর্তীতে একজনসহ মোট ৩জনের মৃত্যু হয়েছে। বাকি আহতরা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এ বিষয়ে বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, উইলসন রোডের রফিকুল ইসলামের মালিকানাধীন পাঁচতলা বাড়ির নিচতলায় সকালে এ ঘটনা ঘটে। সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণের ঘটনায় অন্তঃসত্ত্বা এক নারী ও দুই শিশু নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও পাঁচজন।

1