সুশান্তের মৃত্যুর সঙ্গে সালমানের সম্পর্ক কী

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: দেহান্তর মানেই নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়া না, শেষ হয়ে যাওয়া না। চলে যাওয়া মানে প্রস্থান না। চলে যাওয়ার পরও অনেক স্মৃতি যেমন থেকে যায়, তেমনি অনেক কথাও শুরু হয়। সে ‘চলে যাওয়া’ সুশান্ত সিং রাজপুতের মতো অকালে হয়, অস্বাভাবিক হয়, তাহলে তো কথার বাঁধ ভাঙা স্রোত তৈরি হয়। নানা মত, নানা আলোচনা হয়। সামনে আসে শত শত প্রশ্ন।

​তেমনি সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে উঠতে শুরু করেছে নানা প্রশ্ন। কেন সুশান্ত আত্মহত্যা করলেন? শুরুতেই এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে বলিউডের একাংশের দিকে আঙুল তোলেন কঙ্গনা রানাউত। নাম বলেননি, তাই সুশান্তের পরিণতির জন্য ঠিক কার বা কাদের কথা বলতে চাইছেন কঙ্গনা, তা নিয়ে আলোচনা, গবেষণা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। নানা অভিযোগ, অনুযোগ সেখানে।

এরই মধ্যে কয়েকটি নামও চলে এসেছে নেটিজনদের আলোচনায়। বিশেষ করে করণ জোহর এবং সালমান খানের বিরুদ্ধে বিষোদগার করছেন নেটিজেনদের একাংশ। শুধু তা–ই না, সুশান্তের মৃত্যুর জন্য করণ, সালমানদের দায়ী করে তাঁদের কুশপুত্তলিকা পোড়ান প্রয়াত অভিনেতার ভক্তরা। পাটনায় এমন ঘটনা ঘটেছে। ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যম খবরটি প্রকাশ করেছে। সুশান্তের মৃত্যুর জন্য বলিউডের এই বড় তারকাদের স্বজনপোষণকেই দায়ী করছেন অনেকে। সেই রাগ এবং ক্ষোভেই কুশপুত্তলিকা পোড়ানো হলো।

এক অনুষ্ঠানের স্টেজে সুন্দর মুহূর্তে। ছবি: টুইটার থেকেএক অনুষ্ঠানের স্টেজে সুন্দর মুহূর্তে। ছবি: টুইটার থেকেএদিকে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর করণ জোহরের ধর্মা প্রোডাকশন, যশরাজ ফিল্মস, টি সিরিজ, একতা কাপুরের বালাজি, সালমান খান প্রোডাকশন এবং নাদিয়াদওলা প্রয়োজনা সংস্থার দিকে আঙুল তোলেন কমল আর খান। সুশান্তের মৃত্যুর পর তিনি একটি টুইট করেন। সেখান তিনি অভিযোগ করেন, বলিউডের এই ৬টি প্রযোজনা সংস্থার হাতে গোটা বলিউড। এই ৬টি সংস্থা যদি কাউকে পছন্দ না করে, তাহলে খুব সহজে যে কারোরই ক্যারিয়ার ধ্বংস করে দিতে পারে বলেও মন্তব্য করেন কমল আর খান।

পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের ভাই অভিনব কাশ্যপ আরেক দফা এগিয়ে। সুশান্তকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করা হয়েছে বলে সরাসরি বলছেন অভিনব কাশ্যপ।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে মুখ খুলতে গিয়ে বলিউডের খান পরিবারের বিরুদ্ধে কার্যত বিষোদগার করেন অভিনব কাশ্যপ। তিনি বলেন, দাবাং-এর সাফল্যের পর অর্থাৎ বছর দুয়েক আগে দাবাং পার্ট টু তৈরিতে হাত দেন। ওই সময় সালমান খানের দুই ভাই আরবাজ খান এবং সোহেল খান তাঁর ক্যারিয়ার ধ্বংস করে দেওয়ার জন্য উঠেপড়ে লাগেন বলে অভিযোগ করেন অভিনব। শুধু তা–ই নয়, অভিনব তাঁদের কথামতো না চললে, তাঁকে খুন করা হবে এবং পরিবারের মহিলা সদস্যদের ধর্ষণ করা হবে বলেও নাকি হুমকি দেওয়া হয় অনুরাগ কাশ্যপের ভাইকে। এসব তিনি টুইটারে লিখেছেন স্পষ্টভাবে।

সুশান্তের ভক্তরা উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং–উনের ছবি মিশিয়ে লিখেছেন, হত্যাকারী। ছবি: টুইটারসুশান্তের ভক্তরা উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং–উনের ছবি মিশিয়ে লিখেছেন, হত্যাকারী। ছবি: টুইটার অন্যদিকে প্রকাশ্যে বুলিং থেকে শুরু করে মানুষকে সুযোগ করে না দেওয়া, একাধিক বিষয় নিয়ে সালমান খানকে বয়কটের ডাকও দিয়েছেন। সুশান্তকে বয়কট করা হয়েছিল, দাবি করে তাঁরা বলছেন, সালামান খানের সহযোগিতায় যেমন একাধিক তারকা বলিউডে জায়গা করে নিয়েছেন, ঠিক তেমনই তাঁর মদদে অনেকে বলিউডকে বিদায় জানিয়েছেন। এমনও দেখা গেছে, সালমানের টুইটারে মন্তব্যের জায়গায় উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং–উনের ছবি মিশিয়ে লিখেছেন, হত্যাকারী!

অবশ্য সালমানের ভক্তরাও বসে নেই। তাঁদের মতে, সালমান ও সুশান্ত ভালো বন্ধু ছিলেন, তাই সালমানকে টার্গেট করা বন্ধ হোক। তাঁরা সুশান্তের সঙ্গে সালমানের সুন্দর মুহূর্তের ছবি শেয়ার করছেন।

সুশান্তকে নিয়ে সালমানের সেলফি। ছবি: টুইটারসুশান্তকে নিয়ে সালমানের সেলফি। ছবি: টুইটারগেল রোববার বান্দ্রার বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছিলেন ৩৪ বছর বয়সী বলিউডের তরুণ নায়ক। প্রাণখোলা, হাসিখুশি এই নায়কের মৃত্যু ঘিরে উঠে এসেছে একাধিক প্রশ্ন। সুশান্তের বাসা থেকে পুলিশ ডাক্তারের একটি প্রেসক্রিপশনও উদ্ধার করেছে। যেখানে উচ্চমাত্রার অ্যান্টিডিপ্রেশনাল পিল ও ঘুমের ওষুধের নাম লেখা ছিল। তবে সুশান্তের পরিবারের দাবি, খুন করা হয়েছে তাঁদের সন্তানকে। সুশান্তের আত্মহত্যার ঘটনাটির তদন্ত করছে মুম্বাই পুলিশ। এখন পর্যন্ত ছয়জনকে জেরা করা হয়েছে।

1