৫ হাজার ৬ শত পিস ইয়াবাসহ নগদ অর্থ উদ্ধার

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:  র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধের উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতার আইন শৃংখলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বিভিন্ন অপরাধীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য র‌্যাব ফোর্সেস নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে থাকে। মাদকের করাল গ্রাস থেকে যুব সমাজ তথা দেশকে বাচাঁতে র‌্যাব নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে।

এরই ধারাবাহিকতায় অদ্য ২৮ জুন ২০২০ খ্রিষ্টাব্দে বিকাল ৪ টায় নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানাধীন মদনপুরস্থ রাফি ফিলিং স্টেশন এর সামনে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে পরিচালিত র‌্যাব-১১ এর চেকপোস্টে চট্টগ্রাম হতে ঢাকাগামী সন্ধিগ্ধ একটি প্রাইভেটকারে তল্লাশী করে ৫৬০০ পিস ইয়াবা ও মাদক বিক্রির নগদ ৬৭ হাজার ২৫০ টাকা উদ্ধারসহ ০২ মাদক ব্যবসায়ী’কে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলোঃ ১। মোঃ নাজিম হোসেন @নাজিম (২১) ও ২। মোঃ শাহেদের জামান @শাহেদ (৩০)। তল্লাশীকালে মাদক ব্যবসার কাজে ব্যবহৃত প্রাইভেটকারটিও জব্দ করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামীরা পরস্পর যোগসাজসে অভিনব কৌশলে প্রাইভেটকারের ভিতর লুকিয়ে ইয়াবা নিয়ে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে সরবরাহ করার জন্য আসছিল।

গ্রেফতারকৃতদেরকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ ও অনুসন্ধানে জানা যায় যে, আসামী মোঃ নাজিম হোসেন @নাজিম এর বাড়ী চট্টগ্রাম জেলার জোরালগঞ্জ থানাধীন উত্তর সোনাপাহাট এলাকায় এবং মোঃ শাহেদের জামান @শাহেদ এর বাড়ী মোবারকগুনা এলাকায়। গ্রেফতারকৃত আসামীরা পরস্পর যোগসাজসে দীর্ঘদিন ধরে নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা ও এর আশপাশের এলাকায় অভিনব পন্থায় নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য ইয়াবা ক্রয়-বিক্রয় ও সরবরাহ করে আসছিল। মাদক ব্যবসা ছিল তাদের একমাত্র পেশা। জিজ্ঞাসাবাদে তারা আরোও স্বীকার করে যে, দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধভাবে সীমান্ত এলাকা দিয়ে অভিনব কায়দায় নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য ইয়াবা বাংলাদেশে প্রবেশ করায় এবং প্রাইভেটকারে বিশেষ কৌশলে নিয়ে এসে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে আসছে।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানায় আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

1