সন্তানদের নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মানববন্ধন

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টি ফোর ডটকম :  ফতুল্লায় রাস্তায় রিকশা রাখাকে কেন্দ্র করে এক পরিবারকে কুপিয়ে মারধর করায় ছাত্রলীগ নেতার চাচা ও তার বাহিনীর বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়।

এ মামলাটি উঠাতে হুমকি দিয়ে ব্যর্থ হয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি শাহরিয়ার হিমেল ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ এনে ওই পরিবারের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন।

এতে ছাত্রলীগ নেতার চাচা ও তার বাহিনীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটি প্রত্যাহার না করায় এক নারী দিয়ে মিথ্যা গণধর্ষনের অভিযোগ এনে আদালতে আরেকটি পিটিশন মামলা দায়ের করেন।

ধর্ষনের এ মামলা নারায়ণগঞ্জ পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

হতদরিদ্র ওই পরিবারটি মানুষিক ও পারিবারিক টেনশন থেকে অবশেষে জেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চেয়ে ছাত্রলীগ নেতা হিমেল তার চাচা মজিবুর ও তাদের বাহিনীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন।

রোববার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে অভিযোগ করে মানববন্ধন করেছেন।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন রিকশা গেরেজ মাহজন শফি প্রধান তার স্ত্রী ও তিন ছেলে সন্তান।

শফি প্রধান বলেন, সস্তাপুর এলাকায় আমার গ্যারেজের সামনে রাস্তায় এক চালক রিকশা রেখে গ্যারেজে আসে। এ সময় ছাত্রলীগ নেতা হিমেলের চাচা মজিবুর ও তার বাহিনীর লোকজন যেতে সমস্যা হওয়ায় আমার তিনটি সন্তানের সামনে আমাকে এলোপাথারী মারধর করে। এতে আমার ছেলেরা আমাকে রক্ষা করার চেস্টা করেন। তখন মজিবুর তার লোকজন দিয়ে আমার তিন ছেলেকে গলায় ছুরি ধরে রাখে। ওই সময় পার্শ্ববর্তী সজল সহ কয়েকজন এগিয়ে এসে আমাকে তাদের কাছ থেকে উদ্ধারের চেষ্টা করে। এতে সজলসহ কয়েকজনকে এলোপাথারী মারধর করে।

এক পর্যায়ে সজলের একটি আঙ্গুল কোপ দিয়ে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে এবং আরো একজনকে কুপিয়ে আহত করে তারা চলে যায়। এমন ঘটনায় আমার ছেলে বাদল বাদী হয়ে ফতুল্লা থানায় হিমেলের চাচা জুয়েল তার তাদের বাহিনীর বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন।

1