বাবুল গংয়ের কাজে জিম্মি হয়ে পড়েছে বেজেরগাঁওসহ আশ পাশের এলাকাবাসী

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টি ফোর ডটকম : নারায়ণগঞ্জের বন্দর ইউনিয়নের বেজেরগাঁ গ্রামের কুখ্যাত মাদক স¤্রাট ও মহা প্রতারক বাবুল গংয়ের কাজে জিম্মি হয়ে পড়েছে বেজেরগাঁওসহ তার আশ পাশের এলাকাবাসী। একেতো মাদক ব্যবসার মাধ্যমে এলাকার তরুন ও যুব সমাজকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছেই তার উপরে আবার বিদেশ পাঠানোর নাম করে এলাকার অগণিত লোকজনের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে সর্বশান্ত করছে। তার বিরুদ্ধে বন্দর থানায় মাদক মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে এবং বিদেশ, পাঠানোর নামে রয়েছে পাহাড় সমেত অভিযোগ। ভুক্তভোগীরা স্থানীয় চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন জনের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়ালেও কোন বিচার পাচ্ছেনা। বরং পাওনাদার এবং ভুক্তভোগীদের বিরুদ্ধে মামলা-হামলাসহ নানাভাবে হয়রানি করে বেড়াচ্ছে। যে কারণে একরকম হতাশা আর চরম শংকার মধ্যে দিন কাটচ্ছে বাবুলের শিকার হওয়া নিরীহ জন সাধারণ। সুবিচার পেতে ভুক্তভোগীরা বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ,উপজেলা নির্বাহী অফিসার,নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার,জেলা প্রশাসক ও সংসদ সদস্য এবং মাবাধিকার সংগঠনসহ উর্দ্ধতন সকল মহলের তদন্তপূর্বক আশু কার্যকরি পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছে। এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ এলাকার রাজু মিয়ার স্ত্রী কনিকা,আক্তার মিয়ার স্ত্রী মাফিয়া জানান,বেজেরগাঁও গ্রামের শুক্কুর মিয়ার ছেলে বাবুল অত্যন্ত খারাপ প্রকৃতির লোক। বিভিন্ন সময়ে সে বেজেরগাঁও,চিনারদী,কুশিয়ারা,তিনগাঁও ও নবীগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকার সহজ সরল লোকজনকে বিদেশ পাঠানোর নাম করে লাখ লাখ টাকা আতœসাৎ করেছে। পাশাপাশি অনেকের জায়গা-সম্পত্তি নিয়ে প্রতিনিয়তই হয়রানি করে আসছে। ১৮ বছর আগের বেজেরগাঁওয়ের সামছু মিয়ার ভাই আবু মিয়াকে খুন করে। ওই মামলায় ১২বছর জেল খেটে বের হওয়ার পর আবার সে উৎপাত শুরু করেছে। এখনো তার বিরুদ্ধে ১৪টি মামলা রয়েছে,হানিফ,সুমাইয়া,পুস্প রানী,মাফিয়া বেগম,ডলি আক্তার,তাজমহল,মোহন রায়,সুমন রায়ও তার বিরুদ্ধে পাহাড় সমতে অভিযোগ করেন।

1