তৈমূরের যাদুতে নিবর পুলিশ, রাস্তা বন্ধ করে মানববন্ধন

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টি ফোর ডটকম:  হঠাৎ করেই পাল্টে গেল নারায়ণগঞ্জে বিএনপির রাজনীতির চিত্র। যেখানে বিগত বছর গুলোতে বিএনপি আন্দোলনের কর্মসূচিতে রাস্তায় ব্যানার নিয়ে দাঁড়াতে দেয়নি পুলিশ। প্রেসক্লাবের মূল রাস্তা তো দূরের কথা প্রেসক্লাবের গলিতে গিয়ে ও এক মিনিটের জন্য দাঁড়াতে পারেনি। অথচ জেলা বিএনপির নতুন আহবায়ক জেলা কমিটির জাদুতে পুলিশ পাহারায় রাস্তা দখল করে মানববন্ধন করেছে জেলা বিএনপি। এটা নিয়ে গোটা রাজনৈতিক মহলে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। এত বছর জেলা বিএনপির ব্যানার নিয়ে এক মিনিটের জন্য রাস্তায় দাঁড়াতে পারেনি নেতাকমীরা অথচ সোমবার ১১ জানুয়ারি দেখা গেলো সম্পূর্ণ ভিন্ন এক দৃশ্যপট। প্রধাণ নির্বাচন কমিশনারের পদত্যাগের দাবীতে ঘন্টাকাল ব্যাপী মানববন্ধন করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির নব গঠিত আহবায়ক কমিটি। মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে এড. তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশন যে কতটা নির্লজ্জ আর অপদার্থ তা বলার অপেক্ষা রাখে না। আমি মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে বলবো আপনি যদি শুধু আওয়ামীলীগের লাষ্ট্রপতি হয়ে থাকেন তাহলে আমার কিছু বলার নেই কিন্তু আপনি যদি সমগ্র দেশবাসীর রাষ্ট্রপতি হয়ে থাকেন তাহলে আপনিও জবাবদিহিতার উর্ধ্বে নন। জবাবদিহিতার প্রতি আপনার যদি বিন্দুমাত্র শ্রদ্ধাবোধ থাকে তাহলে আপনি নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে যে দূর্নীতির অভিযোগ দেয়া হয়েছে তার সুষ্ঠ তদন্ত করবেন। তদন্তে যদি অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হয় তাহলে অভিযোগকারীর বিরুদ্ধে আপনি ব্যবস্থা নিতে পারবেন আর যদি অভিযোগ প্রমাণিত হয় তাহলে এই অভিযুক্ত নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে আপনাকে অবশ্যই ব্যবস্থা নিতে হবে।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও নবগঠিত কমিটির আহ্বায়ক এড. তৈমূর আলম খন্দকারের সভাপতিত্বে মানব বন্ধনে উপস্থিত ছিলেন,জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মনিরুল ইসলাম রবি, নাসির উদ্দিন, আব্দুল হাই রাজু, লুৎফর রহমান আব্দু, এড. মাহফুজুর রহমান হুমায়ূন, জাহিদ হাসান রোজেল, নজরুল ইসলাম পান্না, সদস্য খন্দকার আবু জাফর, নজরুল ইসলাম টিটু, এড. আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, শরীফ আহমেদ,মাহমুদুর রহমান সুমন, মোশারফ হোসেন, বশির উদ্দিন বাচ্চু, হাজী সেলিম হক, মোশারফ হোসেন, আশরাফুল আলম রিপন,জুয়েল আহমেদ, ওয়াহিদ বিন ইমতিয়াজ বকুল, রিয়াদ মোহাম্মদ চৌধুরী, হাবিবুর রহমান হাবু, দুলাল হোসেন,কাশেম ফকির, ইউসুফ আলী ভূঁইয়া, আব্দুল আজিজ মাষ্টার, এম এ হালিম জুয়েল, এড. গুলজার হোসেন,শাহ আলম হিরা, নুরুন্নাহার বেগম, একরামুল কবির মামুন, শাহ আলম মুকুল, মোস্তাকুর রহমান, রিয়াজুল ইসলাম, রহিমা শরীফ মায়া, কামরুজ্জামান মামুন হামিদুর হক খান, বাকির হোসেন, আল মোজাহিদ মল্লিক, জেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক সহিদুর রহমান স্বপন, যুগ্ম সম্পাদক রাসেল রানা, জেলা শ্রমিক দলের সভাপতি মন্টু মেম্বার, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আনোয়ার সাদাত সায়েম, সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমানসহ জেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। মানববন্ধনে সঞ্চালনা করেন সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদ।

1