বাবু জোয়ারে ভাসছে নগর

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: আসন্ন নাসকি নর্বিাচন কে কন্দ্রে করে জয় বাংলা নাগরকি কমটিরি মনোনীত র্প্রাথী কামরুল ইসলাম বাবু শনবিার সকাল সন্ধ্যা রাত মলিয়িে গণসংযোগ চালয়িে গয়িছেনে। এদনি নারায়ণগঞ্জরে ১২ ও ১৩ নং ওর্য়াডরে বাসন্দিাদরে সাথে কুশল বনিমিয় করে বলছেনে, “সবুজ, সুন্দর, সুশাসতি ও সচল শহর করবার শপথে আমি গয়িছে।ি আপনারা আমার প্রতি আস্থা রাখতে সময় ননি। কন্তিু যোগ্য কাউকে নর্বিাচন করতে নশ্চিয়ই আপনারা এবার ভুল করবনে না।“

বাবু বভিন্নি পশোর মানুষরে সাথে আলাপচারতিায় যয়েে বলনে, “রাজনীতকিরো শুধুই মথ্যিে প্রতশ্রিুতি দয়ে। তাঁরা বাঙালি জাতরি শকেড়রে সন্ধানে থাকতে পারে না বলইে কথার ফুলঝুরতিে থকেে জনশ্রণেকিে ঠকয়িে যাওয়ার অনুশীলনে থাকছ।ে কন্তিু, শহর রক্ষার জন্য ক্রডেবিল মুভমন্টে প্রয়োজন। নগরীর সমৃদ্ধরি পথে তাঁরা যদি হাটতে চাইতো তাহলে বাংলার মাট,ি বাংলা ভাষা , বাংলার সংস্কৃতি , মুক্তযিুদ্ধরে চতেনা , বঙ্গবন্ধু , স্বাধীন বাংলাদশে এবং জাতীয় স্লোগান ‘জয় বাংলা’য় নজিরে মন ও জীবন সঁপে দয়িে এই নারায়ণগঞ্জকে তাঁরাই বলতে পারত, হে জাতরি জনক, আমরা তোমার তনয়া শখে হাসনিার নতেৃত্বরে প্রতি আস্থায় থকেে তাঁর মত করে দশেকে সাজাবো। এই শহরকে বন্দরনগরী শুধু নয়, শল্পি নগরী হসিাবইে নয়, আমরা প্রয়ি নারায়ণগঞ্জকে র্পযটন শহর করব। তখন স্বয়ংক্রয়িভাবে নারায়ণগঞ্জ সুন্দর ও প্রাকৃতকি সৌর্ন্দযে ভর করে শ্রষ্ঠে র্পযায়রে অধুনা নগরী হসিাবে বাংলাদশে সহ সারাবশ্বিকে চৎিকার করে বলতে পারতো, তোমরা এসো আমাদরে শহর।ে কন্তিু, আমরা কি তা করতে পরেছেি ? একটি বলয় আছে সন্ত্রাসরে রাজনীতি নয়ি।ে অন্য বলয় দায়ত্বিশীল জায়গায় পৌঁছে যয়েে করছে হরলিুট, র্দুনীত।ি তাহলে আমরা যারা রাজনীতরি মঞ্চে হাজরি হই নবাগত হয়,ে তাঁদরেকে কনে এই নগরবাসী বশ্বিাস করবে ? “

বাবু এদনিওে গণসংযোগকালে মাঝে মাঝে পথসভার মত করে হ্যান্ড মাইক হাতে নয়িে নদিনেপক্ষে ৬ বাররে মত বক্তব্য দনে। তনিি বলনে, “আমার আর্দশ মহান মুক্তযিুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও শখে হাসনিা। কন্তিু, আমার প্রয়ি দলরে সদস্যও আমি নই। কাজইে ‘প্রতীক’ নয়িে আমার আপাত রাজনীতি নইে। আমি আমার কাজ করে যাব। বাকীটুকু স্রষ্টা দখেবনে।নাসকি ট্রনেরে এক্সপ্রসেে উঠছে।ি চালক হতে পারলে একদনি আওয়ামী লীগে যোগদান করে সাংগঠনকি ভত্তিওি মজবুত করে দবে। কারণ, এই শহরে অতি আস্তকি শক্তরি আস্ফালন আছ,ে তাঁরা ঝাঁপয়িে পড়তে পার।ে তাঁরা মুক্তযিুদ্ধকে মানত না। তাঁরা এই শহরে তলে তলে আওয়ামী লীগরে একটি বলয়রে সাথে চল।ে স্বাধীনতা বরিুদ্ধশক্তকিে রুখতে হব।ে অন্যরা কথার কথায় অনকে কছিুই বল।ে আর আমি রাজপথে থকেে এদরেকে মোকাবলো করার সার্মথ্য রাখ।ি অথচ, আমি পুরোদস্তুর রাজনীতকি নই।“

ক্লনি ইমজেরে বাবু বলনে, “আওয়ামী লীগ যা ভাল মনে করবে সটোই করুক।কন্তিু, আমি নর্বিাচনে যাব। স্বভাবতই দলটরি সর্মথন প্রত্যশা করব, তবে মনোনয়ন চয়েে নয়।ভবষ্যিতে আমি দলরে হাইব্রডি নতো হতে লড়বও না।পরোক্ষভাবে দলরে সাহায্য় করব। অতঃপর এক যুগ পর দখো যাব।ে তব,ে ডসিম্বেরে অনুষ্ঠতি নর্বিাচনে একজন মুজবি সনো হয়ে মাঠে থাকছ।ি শহরবাসী যদি আজ আমার নাম প্রথম শুনে থাকনে, এখন থকেে শুনতইে থাকবনে।“

জয় বাংলা নাগরকি কমটিরি যুগ্ম আহবায়ক হুমায়তুন কবরি একটি পথসভায় বলনে, “আমরা র্বতমান ময়ের মহোদয়কে সময়সীমা নর্ধিারণ করে বলছেলিাম, পদত্যাগ করুন। তনিি পদত্যাগ না করলওে আগামী ২০২১-২২ র্অথ বছররে জন্য যে বাজটে দয়িছেনে, তাতে করে দখো যায়, তনিি নজিওে হয়তো এই গুরুদায়ত্বি আর নতিে চাইছনে না। র্দুবল ও দায়সারা গোছরে বাজটে দয়িে তনিি ফলত এই নগরীর জন্য আর কছিু করতে চাইছনে না বলে অনুমতি হয়। তব,ে জয় বাংলা নাগরকি কমটিরি পক্ষ থকেে র্কমসূচী আসছ।ে সময় মত জানয়িওে দয়ো হব।ে আর জনাব বাবু আমাদরে মনোনীত র্প্রাথী, তাঁর নাম তো নগরবাসী শুনছেইে, বরং বাবু জোয়ারে ভাসছে নগর, এটি বাস্তবতা।“

গণসংযোগকালে এদনি জয় বাংলা নাগরকি কমটিরি শতাধকি নতোর্কমী উপস্থতি ছলিনে। যাদরে মধ্যে মোশ্তাক আহমদে, ইমরান রোমান, তুষার খান, মানজলি হোসনে, কাজি মামুন(

1