ফতুল্লা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী চুরান্ত করার লক্ষে ফতুল্লা থানা আ’লীগের জরুরী সভা

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টি ফোর ডটকমঃ দীর্ঘ ৩০ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। এই নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী চুরান্ত করার লক্ষে ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে আওয়ামীলীগকে ঐক্যবদ্ধ করতে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের একাধিক প্রার্থীদের মধ্যে একজনকে চুরান্ত করার জন্য সকল প্রার্থীদের নিয়ে জরুরী সভা করা হয়। সভায় দলীয় প্রার্থী হিসাবে প্রত্যাশিত সাতজন উপস্থিত হয়ে নিজের প্রার্থী দাবি করে বক্তব্য দেন। সকল প্রার্থী দাবি নিয়ে বক্তব্য দিলেও তারা আবার দলীয় ভাবে যাকে মনোনয় নিবেন তার পক্ষে কাজ করার অঙ্গিকারও করেন। তবে শুধু পদ পদবী না দেখে যোগ্য ব্যক্তিকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার আহবান করেন তৃনমূলের নেতাকর্মীরা।

মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) বিকেলে পঞ্চবটিতে আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে আসন্ন ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী চুরান্ত করার লক্ষে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশা নিয়ে বক্তব্য রাখেন ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি লুৎফর রহমান স্বপন, ফতুল্লা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মিছির আলী, ফতুল্লা থানা যুবলীগের সভাপতি মীর সোহেল, থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফাইজুল ইসলাম, ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক ফরিদ আহম্মেদ লিটন, ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু মোহাম্মদ শরীফুল হক, থানা আওয়ামীলীগের সদস্য মজিবুর রহমান।

তারা তাদের বক্তব্যে আওয়ামীলীগের রাজনীতি করে কতটুকু নির্যাতিত হয়েছেন তা তুলে ধরেন।কেউ কেউ বক্তব্য দিতে চোখের জ্বলও ফেলে দেয়। আবার অনেক দলের জন্য কি করেছেন তা তুলে ধরেন। কেউ কেউ বলেন, কতদিন রাজনীতি করেন এবং অন্য দল থেকে এসে আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে এসেছেন তাও কেউ ইঙ্গিত দিয়ে বক্তব্য দেন। এমনকি কবরীর শাসন আমলে কে সুবিধা নিয়েছে এবং কে কে নির্যাতিত হয়েছে তাও তুলে ধরেন।

জরুরী সভায় ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি এম সাইফউল্লাহ বাদল ও সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী তাদের বক্তব্যে বলেন, সকল প্রার্থীদের বক্তব্য শোনলাম এবং বুঝতে পারলাম ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের একাধিক প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাশা করেছেন। আমরা সবাইকে নিয়ে এবং সকলের মতামত নিয়ে আলোচনা করে আমাদের এমপি শামীম ওসমানের সঙ্গে আলোচনা করে একজনকে মনোনয়ন দেয়া হবে। আমরাও চাই সবাইকে এক সাড়িতে এনে সবাইকে কাধে কাধে মিলিয়ে আওয়ামীলীগের প্রার্থীকে বিজয়ী করার জন্য কাজ করার আহবান করছি। আমাদের সকলের নেতা এমপি শামীম ওসমানের সাথে আলোচনা করে একজনকে মনোনীত করে জেলা আওয়ামীলীগের মাধ্যমে তার নাম কেন্দ্রে পাঠানো হবে। দলীয় ভাবে যাকে মনোনয়ন দেয়া হবে সবাই যেন ঐক্যবদ্ধ হয়ে তার পক্ষে কাজ করেন সেই আজবান করেন ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের দুই শীর্ষ নেতা।

সভায় ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব এম সাইফউল্লাহ বাদলের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব এম শওকত আলীর পরিচালনায় উপস্থিত ছিলেন ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি আসাদুজ্জামান, ওয়ালী মাহমুদ খান, আশরাফুল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুম, জাহাঙ্গীর হোসেন, এমএ মান্নান, থানার নেতার মতি প্রধান, মোস্তফা চৌধুরী, জাহেদুল হক খোকন, রেহান শরীফ বিন্দু, বিউটি, জসিম উদ্দিন, আবুল হোসেন প্রধান, মো: বাবুল, ইদ্রিস আলী, রাজ্জাক মাস্টার, সালাউদ্দিন, রঞ্জিত মন্ডল প্রমুখ।

1