পাকিস্তানের কাশ্মীর প্রিমিয়ার লীগে আমন্ত্রণ পাচ্ছেন কোহলি

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টি ফোর ডটকমঃ   পাকিস্তান অধ্যুষিত কাশ্মীরে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট (কেপিএল) আয়োজনে শুরু থেকেই বিরোধিতা ছিল ভারতের। এ টুর্নামেন্টে অংশ নেয়া বিদেশি ক্রিকেটার ও কোচিং স্টাফদের হুমকি দেয় বিসিসিআই। জানায়, কাশ্মীর প্রিমিয়ার লীগে অংশ নিলে ভারতে নিষিদ্ধ করা হবে। প্রতিবেশি রাষ্ট্রের চোখ রাঙানি উপেক্ষা করেই গতবার আয়োজন করা হয় টুর্নামেন্টটি। আরও বড় পরিসরে আসছে দ্বিতীয় সংস্করণ। এবার ভারতীয় ক্রিকেটারদের আমন্ত্রণ জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে টুর্নামেন্ট কর্তৃপক্ষ।
কেপিএল প্রেসিডেন্ট আরিফ মালিক সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘আমরা বিরাট কোহলিকে একটি চিঠি পাঠাতে যাচ্ছি। তাকে কেপিএলে খেলার আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। অনুরোধ করেছি, এখানে এসে অন্তত যেন একটা ম্যাচ হলেও দেখে যান।’

রাজনৈতিক কারণে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ আছে ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। আইপিএলেও সুযোগ পান না পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। একমাত্র আইসিসি ও এসিসি’র টুর্নামেন্টে সাক্ষাত হয় তাদের

তবে দু’দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক লক্ষ্য করা যায় প্রায়ই। কেপিএল প্রেসিডেন্ট আরিফ মালিক শান্তির বার্তা দিতেই কোহলিকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন। তিনি বলেন, ‘মোহাম্মদ রিজওয়ান ইতিবাচক বার্তা দিয়েছেন কিছুদিন আগে। তিনি বলেছেন, ক্রিকেট সবকিছুর উর্ধ্বে। এ কারণেই আমরা কেপিএলে খেলতে কোহলিকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। আমাদের দিক থেকে এটা শান্তির বার্তা। এখন তিনি আসবে কিনা সেটা একান্তই তার ব্যক্তিগত ব্যাপার।’
পাকিস্তানের পাশাপাশি ভারতীয় ক্রিকেটারদেরও কেপিএলে চান মালিক। তিনি মনে করেন, একমাত্র ক্রিকেট দিয়েই দুই দেশের শীতল সম্পর্ককে উষ্ণ করা সম্ভব। মালিক বলেন, ‘আমরা ভারতের অন্য খেলোয়াড়দেরও টুর্নামেন্টে চাই। আমরা বিশ্বাস করি, দুই দেশের মাঝে সেতুবন্ধন তৈরির একমাত্র উপায় হলো খেলাধুলা।’

১লা আগস্ট শুরু হওয়ার কথা কেপিএলের দ্বিতীয় আসর। টুর্নামেন্টের ফাইনাল ১৪ই আগস্ট। ড্রাফট অনুষ্ঠিত হতে পারে জুনে।

1