সেচ্ছাসেবক দলের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘষের ঘটনায় আহত ৭

0

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমঃ নারায়ণগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মীসভায় আগে প্রবেশ করাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় প্রায় ৭ জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। বুধবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে শহরের দেওভোগে জান্নাত কনভেনশন হলের বাইরে এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, দেওভোগে জান্নাত কনভেনশন হলে নারায়ণগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মীসভার আয়োজন করা হয়। কর্মীসভার শুরুতে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান ও রূপগঞ্জ থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি রফিকের নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে সম্মেলনস্থলে আসে। কনভেনশন হলে প্রবেশের আগে রাস্তায় দাড়িয়েই নানা স্লোগান দিতে থাকে কর্মী-সমর্থকরা। এক পর্যায়ে কনভেনশন হলের ভেতরে ঢুকাকে কেন্দ্র করে শুরু হয় তর্কাতর্কি, তারপর হাতাহাতি। এঘটনায়, মাহবুবুর রহমানের ৪/৫ জন আর রফিকের ৩/৪ জন কর্মী সমর্থক আহত হয়। পরে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আনোয়ার সাদাত সায়েম ও রফিক মিলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি রফিকুল ইসলাম বলেন, মিছিলে নেতাকর্মীর সংখ্যা বেশি ছিল। এটা দেখে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব তার লোকজন নিয়ে আমাদের মিছিলে হামলা করে। পরে আমাদের লোকজনও পাল্টা প্রতিরোধের মুখে মাহবুবসহ তার নেতাকর্মীরা পালিয়ে যান। এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান বলেন, তেমন বড় কোনো ঘটনা ঘটেনি। কনভেনশন হলের প্রবেশ করতে গিয়ে গেটে নেতাকর্মীদের মধ্যে হুড়োহুড়ি থেকে ধাক্কাধাক্কি হয়েছিল। কর্মীসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এস এম জিলানী। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সাদারণ সম্পাদক রাজীব আহসান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি ইয়াছিন আলি ও সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হাসান।

0