বিশ্বের বুকে পাবজীতে নেতৃত্ব দেবে বাংলাদেশ – মোহাম্মদ আবু মুসা মিঠু

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম: পুরো পৃথিবীতে এখন জনপ্রিয় গেমস হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে পাবজী। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশও। বিশ্বের বুকে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশে এবং দেশের বাহিরে প্রবাসী একদল তরুণ যুবক। তাদের মধ্যে অন্যতম পৃষ্ঠপোষক মোহাম্মদ আবু মুসা (মিঠু)।
বর্তমানে তিনি কয়েকটি টিমের মালিক ও বাংলাদেশ পাবজী আর্গানাইজেসনের চেয়ারম্যান তার সাথে আলাপ করে আগামী দিনের পরিকল্পনা ও বতর্মানকে নিয়ে আলোচনা হয় ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকমের সাথে। বাংলাদেশে পাবজীর অন্যতম সংগঠক (পি এস আর এম প স্কিম) বিসিএল, পিএম ইউ এনবি, পিএম ইউ সি বি এর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আবু মুসা বলেন, আমরা ইতিমধ্যে পাবজীতে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করেছে। ফুটবল, ক্রিকেট সহ বিভিন্ন খেলার মত এটি একটি খেলা। যেখান থেকে ভাল মানের খেলোয়াড়রা সারা বিশ্বে পরিচিত পাবে এবং ভালো আর্থিক ইনকামের ব্যবস্থা হবে। যা কিন এক জন সরকারী চাকুরীজীবীর ১৪- ১৫ সময় লাগবে এ পর্যায়ে আয় করতে। আমরা ঘরোয়া লীগের মতো টুর্নামেন্টের আয়োজন করেছি, সেখানে লাখ লাখ খেলোয়াড় অংশগ্রহণ করেছে তাদের মধ্য থেকে আমরা যাচাই বাছাই করে ভালো মানের এবং কোয়ালিটি সম্পন্ন খেলোয়াড়দের নিয়ে টুর্নামেন্ট করি। সেখান থেকে ভালো ভালো খেলোয়াড় তৈরি হয়ে আসছে যারা বিশ্বের দরবারে বাংলাদশেরে হয়ে আগামী দিনে নেতৃত্ব দিবে। আমরা বাংলাদেশে এই পাবজী নিয়ে বড় ধরনের একটি আয়োজন করতে চাচ্ছি, যদি আমরা ভালো স্পন্সার বা ফ্রানচাইজ লীগ পাই তাহলে বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের মাথা অনেক উঁচু হয়ে দাঁড়াবে। আগামী বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ভালো রেজাল্ট করবে সে লক্ষ্য এগিয়ে যাচ্ছি আমরা । তার জন্য আমাদের প্রয়োজন সহযোগিতা।

আরেকজন আয়োজক পি এম ইউ সি বি এর ফাউন্ডার শুভ বিশ্বাস বলেন, পি ওয়ান ছোট বড় দলের সাথে খেলা হয় একজন ভালো খেলোয়াড় এ খেলা থেকে প্রতি মাসে দুই থেকে আড়াই লাখ টাকা উপার্জন করতে পারবে। আমরা ইতিমধ্যে ১৫ থেকে ২০ টি ইভেন্ট করেছি। সেখান থেকে ভালো ভালো খেলোয়ারদের সামনে এগিয়ে যেতে আমরা সহযোগিতা করছি । আমাদের এই কাজে সার্বিকভাবে গাইডলাইন করছেন এবং সহযোগিতা করে যাচ্ছেন মোহাম্মদ আবু মুসা। তার মত এমন আরও কিছু লোক এগিয়ে আসলে আমরা আশা করি বিশ্বের বুকে বাংলাদেশে অনেক ভালো পরিচিতি লাভ করবে এবং পাবজি গেমস এর খেলায় অনেক ভাল রেজাল্ট করবে। বাংলাদেশেও এধরনের বড় ইভেন্টের আয়োজন করা সম্ভব যদি স্পন্সর পাওয়া যায়।
(পি এস আর এম প্রো স্কীম) কো- ফাউন্ডার ও পরিচালক ওমর শাকিল (ওয়াকিল) বলেন, আমরা বাংলাদেশের হয়ে বিশ্বের দরবারে নেতৃত্ব দেওয়ার মত খেলোয়ার তৈরি করতে কাজ করছি। মোহাম্মদ আবু মুসার মত আয়োজক এগিয়ে আসে তাহলে আমাদের পক্ষে সম্ভব। তিনি আরও বলেন, আমরা দেশে অনেক ইভেন্ট করেছি। আগামী দিনে আরও ভালো মানের টুনামেন্টর করতে চাই তার আমাদের প্রয়োজন স্পন্সর । আমরা ভালো মানের খেলোয়ার তৈরি করবো যারা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের আর্ন্তজাতিক টুনামেন্টে অংশ গ্রহন করবে।

বিসি এল এর ফাউন্ডার চন্দন সরকার বলেন, আমরা খেলাধুলায় অনেকটা এগিয়ে যাচ্ছি । পাশের দেশ গুলোর সাথে এখন আমাদের ভালো প্রতিযোগিতা হয় যা আগে আমরা চিন্তা করতে পারতাম না। পাবজী গেইম দিয়ে আমরা বিশ্বের কাছে নিজেদের আরও পরিচিতি করতে চাই । আমরা ইতিমধ্যে কয়েটি আর্ন্তজাতিক টুনামেন্ট অংশ গ্রহন করেছি যেখানে আমাদের ছেলেরা ভালো রেজাল্ট করেছে। আগামীতে আরও করবো। আমরা চাই সরকার আমাদের সহযোগিতা করুক যাতে আমরা দেশে জন্য সুনাম বয়ে আনতে পারি।

তানভির রহমান (টিয়ার) বলেন, পাশের দেশ ভারত নেপাল খেলায় অনেক দূরে এগিয়ে যাচ্ছে । আমরাও চাই আমাদের দেশে এগিয়ে যাক । আমরা বাংলাদেশে একটি ফ্রাইচ্যজ লীগ করতে চাই । এটা আমাদের দেশের জন্য অনেক রড় একটি পাওয়া হবে। মোহাম্মদ আবু মুসার মত সাবিক সহযোগিতা করার মত মানুষ থাকে তাহলে আমদের আরও পেছনে ফিরে তাকাতে হবে না।

1