আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দলে দিবালা

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:  লিওনেল স্কালোনির দলে নিয়মিত সদস্য পাওলো দিবালা। চোটের কারণে লম্বা সময়ের জন্য জাতীয় দল থেকে ছিটকে যান এই ফরোয়ার্ড। চোট কাটিয়ে জুভেন্টাসের জার্সিতে দারুণভাবে মৌসুম শুরু করেছেন তিনি। গোল পেয়েছেন উদিনেসের বিপক্ষে। পুরো ফিট দিবালাকে তাই সেপ্টেম্বরের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের তিন মাচের দলে ডেকেছেন আর্জেন্টিনা কোচ স্কালোনি। ৩০ সদস্যের স্কোয়াডে ডাক পেয়েছেন গোলরক্ষক জেরোনিমো রুলি, উইঙ্গার এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া ও ডিফেন্ডার হুয়ান ফয়েথ।
চোটের কারণে বাদ পড়েছেন গোলরক্ষক হুয়ান মুসো ও আক্রমণভাগের দুই খেলোয়াড় সার্জিও আগুয়েরো ও লুকাস আলারিও। দলে ফেরার কথা ছিল মাউরো ইকার্দির। ইনজুরিতে পড়ায় দলে ফেরার অপেক্ষা দীর্ঘ হলো পিএসজি ফরোয়ার্ডের।
উইঙ্গার এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়ার দলে ডাক পাওয়াটা প্রত্যাশিত।

গত মৌসুমে নরউইচ সিটিকে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে তুলে আনতে বড় অবদান তার। ১৫ গোল ১৬ অ্যাসিস্ট বুয়েন্দিয়ার। ২৪ বছর বয়সী এই আর্জেন্টাইনকে এই মৌসুমে দলে ভিড়িয়েছে অ্যাস্টন ভিলা। ৩৮ মিলিয়ন পাউন্ডে নরউইচ থেকে ভিলায় নাম লিখিয়েছেন। স্পেনের নাগরিকত্ব থাকলেও জন্মভূমি আর্জেন্টিনাকে বেছে নিয়েছেন তিনি। গত মে’তে প্রথমবার জাতীয় দলে ডাক পেয়েছিলেন। তবে খেলা হয়নি কোনো ম্যাচ। কোপা আমেরিকার দলেও জায়গা পেয়েছিলেন না। ৩০ সদস্যের আর্জেন্টিনা দলে একমাত্র বুয়েন্দিয়াই পাননি আন্তর্জাতিক ফুটবলের স্বাদ।

আগামী ৩রা সেপ্টেম্বর ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে খেলবে আর্জেন্টিনা। ৬ই সেপ্টেম্বর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলের মুখোমুখি হবে আলবিসেলেস্তেরা। কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়নরা ১০ই সেপ্টেম্বর খেলবে বলিভিয়ার বিপক্ষে।

ছয় রাউন্ড শেষে তিনটি করে জয় ও ড্রয়ে ১২ পয়েন্ট নিয়ে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে আর্জেন্টিনা। শতভাগ জয়ে শীর্ষে ব্রাজিল।

আর্জেন্টিনা দল:
গোলরক্ষক: ফ্রাঙ্কো আরমানি (রিভার প্লেট) এমিলিয়ানো মার্তিনেস (অ্যাস্টন ভিলা), হুয়ান মুস্‌েসা (আতালান্তা), জেরোনিমো রুলি (ভিয়ারিয়াল)।
ডিফেন্ডার: গনসালো মনতিয়েল (সেভিয়া), নিকোলাস তাগলিয়াফিকো (আয়াক্স), লুকাস মার্তিনেস কুয়ার্তা (ফিওরেন্তিনা), লিসান্দ্রো মার্তিনেস (আয়াক্স), নাউয়েল মোলিনা (রিয়াল বেতিস), ক্রিস্তিয়ান রোমেরো (টটেনহ্যাম হটস্পার), নিকোলাস ওতামেন্দি (বেনফিকা), হারমান পেজ্জেলা (রিয়াল বেতিস), হুয়ান ফয়েথ (ভিয়ারিয়াল)।
মিডফিল্ডার: লেয়ান্দ্রো পারেদেস (পিএসজি), গিদো রদ্রিগেস (রিয়াল বেতিস), রদ্রিগো ডি পল (আতলেতিকো মাদ্রিদ), এসেকিয়েল পালাসিওস (বায়ার লেভারকুজেন), জিওভানি লো সেলসো (টটেনহ্যাম হটস্পার), নিকোলাস দোমিনগেস (বোলোনিয়া), মার্কোস আকুনা (সেভিয়া), আলেহান্দ্রো গোমেস (সেভিয়া), আনহেল দি মারিয়া (পিএসজি)।
ফরোয়ার্ড: লিওনেল মেসি (পিএসজি), নিকোলাস গনসালেস (ফিওরেন্তিনা), হোয়াকিন কোররেয়া (লাৎসিও), লাউতারো মার্তিনেস (ইন্টার মিলান), আনহেল কোররেয়া (আতলেতিকো মাদ্রিদ), এমিলিয়ান বুয়েন্দিয়া (অ্যাস্টন ভিলা), পাওলো দিবালা (জুভেন্টাস)।

1