সেপ্টেম্বরেই ভারত ভ্যাকসিন পাঠাতে পারে বাংলাদেশে, সেরাম ইনস্টিটিউট তৈরি হচ্ছে

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:   সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি অথবা শেষ দিকে ভারত আবার ভ্যাকসিন সরবরাহ করতে পারে বাংলাদেশে। ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামীর কথাতেও তার ইঙ্গিত মিলেছে। দোরাইস্বামী অবশ্য দিনক্ষণ সঠিক বলেননি, কিন্তু পুনের সেরাম ইনস্টিটিউটের একটি সূত্র জানাচ্ছে অক্সফোর্ড এস্ট্রাজেনেকার কোভিশিল্ড এর উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ছোঁয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভারত সরকার সেরামকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশে ভ্যাকসিন রপ্তানির প্রস্তুতি নিতে। উল্লেখ্য, সেরাম বাংলাদেশকে তিন কোটি ভ্যাকসিন দিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিল। কিন্তু, ভারত সরকার দেশের ক্রমবর্ধমান কোভিডে উদ্বিগ্ন হয়ে ভ্যাকসিন রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। ফলত, সেরাম বাংলাদেশে ৭০ লক্ষর বেশি ভ্যাকসিন রপ্তানি করতে পারে নি।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ভ্যাকসিন কূটনীতি হাইজ্যাক করে চীন বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক নিবিড় করে। উদ্বিগ্ন ভারত ভ্যাকসিনের বদলে বাংলাদেশের কোভিড যুদ্ধের জন্য ১০৯ টি এম্বুলেন্স পাঠায়। পাঠায় অক্সিজেন প্লান্ট। এবার আবার ভ্যাকসিনে ফিরছে ভারত। বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক সহজ করার জন্য স্থলবন্দর গুলি খুলে দেওয়া হয়েছিল আগেই। এবার এয়ার বাবল প্রথা মেনে বিমান চলাচলের মাধ্যমে দু দেশের যোগাযোগ আরও নিবিড় হবে বলেই ভারতের ধারণা। বিক্রম দোরাইস্বামী ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিসংগ্রামে ভারতের ভূমিকার উল্লেখ করে বলেছেন, ভারত বাংলাদেশের পাশে ছিল, আছে, থাকবে।

1