বিপর্যয় কাটিয়ে ওঠার চেষ্টায় লিটন-মুশফিক

1

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টি ফোর ডটকমঃ     মিরপুরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে আগে ব্যাটিং নিয়ে মহাবিপদে পড়েছে বাংলাদেশ। ২৪ রানের ভেতেরেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে টাইগাররা। ষষ্ঠ উইকেটে জুটি গড়ে দলের বিপর্যয় কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছেন মুশফিকুর রহীম ও লিটন কুমার দাস। ২৩ ওভারে ৫ উইকেটে ৬৬ রান নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে গেছে বাংলাদেশ। মুশফিক ২২ ও লিটন ২৬ রানে ক্রিজে আছেন।

১ ঘণ্টার মধ্যেই নেই ৫ উইকেট

চট্টগ্রামে প্রথম টেস্টে মাহমুদুল হাসান জয়কে নিয়ে উদ্বোধনী জুটিতে ১৬২ রান সংগ্রহ করেছিলেন তামিম ইকবাল। তামিম সেঞ্চুরি করেলেও জয় ফিরেছিলেন ৫৮ রানে। ঢাকা টেস্টে সুবিধা করতে পারেননি এই তরুণ ওপেনার। কাসুন রাজিথার করা দিনের দ্বিতীয় বলে বোল্ড হয়ে জয় ফিরেছেন ০ রানে। অসিথা ফার্নান্দোর দ্বিতীয় ওভারে জয়াভিক্রমা অসাধারণ ক্যাচে ফিরেন প্রথম টেস্টের সেঞ্চুরিয়ান তামিম ইকবালও।

মাত্র ছয় রানে দুই ওপেনারকে হারিয়ে চাপে পড়ে বাংলাদেশ। দলীয় ১৬ রানে অধিনায়ক মুমিনুল হকের (৯) বিদায়ে বিপদ আরও বেড়েছে টাইগারদের

তার উইকেটটি নিয়েছেন আসিথা ফার্নান্দো। দলীয় ২৪ রানে কাসুন রাজিথার বলে সরাসরি বোল্ড হন নাজমুল হোসেন শান্ত (৮)। পরের বলেই এলবিডব্লুর ফাঁদে পড়েন সাকিব। রিভিউ নিয়েও লাভ হয়নি। ২৫ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে স্বাগতিকরা।
টসে জিতে ব্যাটিং নিলো বাংলাদেশ

টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। দীর্ঘ ৩২ মাস পর টেস্ট দলে ফিরেছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। সবশেষ ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে খেলেছিলেন এ ব্যাটিং অলরাউন্ডার। ফেরার ম্যাচে তাকে ভিন্ন ভূমিকায় ব্যবহার করা হবে বলে জানিয়েছে টাইগার অধিনায়ক মুমিনুল হক। এছাড়া পেস বিভাগে যুক্ত হয়েছেন ইবাদত হোসেন।

শ্রীলঙ্কার একাদশেও এসেছে জোড়া পরিবর্তন। চট্টগ্রাম টেস্টে খেলা লাসিথ এম্বুলদেনিয়া ও বিশ্ব ফার্নান্দোকে বাদ দিয়েছে তারা। এ দুজনের জায়গায় এসেছেন প্রবীণ জয়াবিক্রম ও কাসুন রাজিথা।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল খান, মাহমুদুল হাসান জয়, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহীম, সাকিব আল হাসান, লিটন কুমার দাস, তাইজুল ইসলাম, মোসাদ্দেক হোসেন, সৈয়দ খালেদ আহমেদ এবং ইবাদত হোসেন।

শ্রীলঙ্কা একাদশ: দিমুথ করুণারত্নে (অধিনায়ক), ওশাদা ফার্নান্দো, কুশল মেন্ডিস, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, দীনেশ চান্দিমাল, নিরোশান ডিকওয়েলা, রমেশ মেন্ডিস, প্রবীণ জয়াভিক্রমা, অসিথা ফার্নান্দো এবং কাসুন রাজিথা।

1