ইউরিয়া সার ও জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির গণবিরোধী সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবিতে সোনারগাঁও এ কৃষক সমিতির বিক্ষোভ সমাবেশ

1
ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টি ফোর ডটকমঃ ইউরিয়া সার, ডিজেল-কেরোসিন এবং পেট্রোল-অকটেনের দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার ও পল্লী রেশনিং ব্যবস্থা চালুর দাবিতে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও এ বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ কৃষক সমিতি। রবিবার (১৪ আগস্ট) বিকেল ৫ টায় সোনারগাঁও এর দড়িকান্দি বাজারে এ সমাবেশ করেন।

বাংলাদেশ কৃষক সমিতির নারায়ণগঞ্জ জেলার যুগ্ন-আহ্বায়ক আঃ বাতেন এর সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হোসেন খান, সিপিবি জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ কৃষক সমিতির জেলা শাখার সংগঠক বীর মুক্তিযোদ্ধা শিবনাথ চক্রবর্তী, জেলার আহ্বায়ক মনিরুজ্জামান চন্দন প্রমূখ।
সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, ইউরিয়া সার ও জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধির ফলে ফসল উৎপাদনের খরচ বেড়ে যাবে। কৃষকরা চরম সংকটে পড়বে। বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির ফলে কৃষক-শ্রমিক ও নিম্ন আয়ের মানুষ আজ দিশেহারা। দেশের খাদ্য নিরাপত্তা আজ হুমকির সম্মুখীন। এই সময়ে খাদ্যশস্য উৎপাদন বাড়াতে কৃষকদের প্রণোদনা দেয়া প্রয়োজন। সেটা না করে সরকার উল্টো ইউরিয়া সারের দাম কেজি প্রতি ৬ টাকা বাড়িয়ে দিয়েছে। এটা কোন ভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। কৃষি বাঁচাতে সরকারকে সর্বোচ্চ ভর্তুকি দেয়ার পদক্ষেপ নিতে হবে।
নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, কৃষক ফসল উৎপাদন করে বাজার সিন্ডিকেটের কবলে পড়ে সার-বীজ-কীটনাশক-সেচ বেশি দামে ক্রয় করে তাদেরকে লোকসান দিতে হচ্ছে। কৃষি উৎপাদনের অন্যতম উপকরণ হচ্ছে সার। এই সারের ডিলাররা অতি মুনাফার লোভে সংকট সৃষ্টি করে কৃষকের কাছে বেশি দামে সার বিক্রি করে। সারের ডিলারদের সিন্ডিকেট ভেঙে দিয়ে বিএডিসির মাধ্যমে সার’সহ সব ধরনের কৃষি উপকরণ বিতরণ করতে হবে। অতিরিক্ত দামে সার ক্রয়ের কারণে অনেক কৃষক ধান উৎপাদনে নিরুৎসাহিত হবে। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে ইউরিয়া সার ও জ্বালানি তেলের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহার করে কৃষি ও কৃষক বাঁচাতে সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।
1