রূপগঞ্জ এলাকার ত্রাস ও অস্ত্র মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী রাজিব মিয়া গ্রেফতার

0

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টি ফোর ডটকমঃ র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন-শৃঙ্খলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বিভিন্ন অপরাধীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য র‌্যাব ফোর্সেস নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে থাকে। বিভিন্ন মামলায় ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে র‌্যাব নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে।

 এরই ধারাবাহিকতায় গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১, সিপিএসসি, আদমজীনগর, নারায়ণগঞ্জের একটি আভিযানিক দল গত ০৮ অক্টোবর ২০২২ইং তারিখে নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানাধীন মাহমুদাবাদ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। উক্ত অভিযানে অস্ত্র মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী, কুখ্যাত সন্ত্রাসী মোঃ রাজিব মিয়া (৩২), পিতা- সালাউদ্দিন, সাং- মাহমুদাবাদ, থানাঃ রূপগঞ্জ, জেলাঃ নারায়ণগঞ্জ’কে গ্রেফতার করা হয়।

 প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ রাজিব মিয়া (৩২)’র নামে রূপগঞ্জ থানায় অস্ত্র মামলা, একাধিক হত্যা চেষ্টা মামলা এবং বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলা রয়েছে। উক্ত মামলা সমূহের মধ্যে অস্ত্র মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারী হলে সে কৌশলে আত্মগোপন করে। গত ২১ জুন ২০২২ তারিখে আধিপত্য বিস্তারের লক্ষে রাজিবের নেতৃত্বে “রাজিব বাহিনীর কিশোর গ্যাং” এর সদস্যরা নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানার তারাবো পৌরসভার বেচারবাগ এলাকায় অস্ত্রের মহড়া ও ফাঁকা গুলি বর্ষন করে। এছাড়াও গ্রেফতারকৃত আসামীর নেতৃত্বে তারাবো পৌরসভা এলাকায় প্রায়ই এই অস্ত্রের মহড়ার ও সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগ পাওয়া যায়। এই ঘটনা জাতীয় পত্রিকা ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় প্রচার হলে, তা সাধারণ জনমতে আতংক সৃষ্টি করেছে। এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাব-১১ এর একটি চৌকস গোয়েন্দা দল অস্ত্র মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী মোঃ রাজিব মিয়া (৩২)’কে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য গোয়েন্দা অনুসন্ধান শুরু করে। পরবর্তীতে গত ০৮ অক্টোবর ২০২২ইং তারিখে গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে উক্ত ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামীকে নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানাধীন মাহমুদাবাদ এলাকায় সনাক্তপূর্বক র‌্যাব-১১, সিপিএসসি এর একটি আভিযানিক দল কর্তৃক অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

0